Home » প্রথম পাতা » রূপগঞ্জ ভ’মি অফিসে অনিয়মই যেন নিয়ম

মসজিদের কোটি টাকা সভাপতির পেটে!

১৫ নভেম্বর, ২০২১ | ৯:১৭ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 100 Views

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি

সিদ্ধিরগঞ্জের চিটাগাংরোড এলাকায় একটি মসজিদের কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতির বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে রবিবার জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী মুসল্লীরা। লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, দীর্ঘ পঁচিশ বছর যাবৎ চিটাগাংরোড এলাকায় অবস্থিত বাইতুস সুজুদ(মিনার মসজিদের) নামে দশটি দোকান থেকে প্রায় আশি লাখ টাকা এককালিন হাতিয়ে নিয়েছেন মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবদুল জব্বার। এছাড়া প্রতি মাসে ওই সকল দোকানগুলো থেকে প্রায় অর্ধলক্ষ টাকা ভাড়া উত্তোলন করা হয়। পানি উন্নয়ন বোর্ড থেকে মসজিদের নামে জমি লিজ নেওয়ার কথা বলে হাতিয়ে নিয়েছেন বারো লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন সরকার। শুধু তাই নয় মসজিদের নামে সরকারি জমি দখল করে বছরে কয়েক লাখ টকা উত্তোলন করেন তারা। দীর্ঘদিন ধরে মসজিদের আয় ব্যায়ের হিসেব না দিয়ে নিজের মনগড়াভাবে লাখ লাখ হাতিয়ে নিচ্ছেন সমজিদ কমিটির সভাপতি আব্দুল জাব্বার। অভিযোগ উঠেছে বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক রানা আহমেদকে নিয়ে একটি পকেট কমিটি বানিয়ে মসজিদের টাকা লোপাট করছেন আব্দুল জাব্বার ও তার ভাতিজা রানা আহম্মেদ। অনুসন্ধান চালিয়ে জানাযায়, সিদ্ধিরগঞ্জের ওয়াবদা আটি এলাকার মরহুম আহসান উল্লাহ মাতবরের ছেলে আব্দুল জব্বার দীর্ঘ পঁচিশ বছর ধরে সরকারি জায়গা দখল করে দোকান নির্মাণ, সাধারণ মুসল্লীদের অনুদানসহ বিভিন্নভাবে আশা মসজিদের তহবিলের লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছেন। শুধু তাই নয় সাধারণ মুসল্লীদের জিম্মি করে চাচা ভাতিজা গায়ের জোড়ে ক্ষমতা দেখাচ্ছেন। এতে ওই এলাকার শতশত মুসল্লী তাদের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে। তাদের ভয়ে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেন না সাধারণ মুসল্লীরা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন মুসল্লী জানান, এই মসজিদের স্বঘোষিত সভাপতি ও তার আপন ভাতিজাকে নিয়ে পকেট কমিটি করে দোকনপাট নির্মাণ, ভাড়া উত্তোলন করে লাখ লাখ টাকা অবৈধভাবে কামিয়ে নিচ্ছেন তারা। নিজের ইচ্ছামতো মসজিদটির পকেট কমিটি বানিয়ে বছরের পর বছর দিব্যি নিজের আখের গোছাতে ব্যস্ত আব্দুল জাব্বার ও তার ভাতিজা রানা। তাদের বিরুদ্ধে কেউ কথা বলতে চাইলে ক্ষমতার প্রভাব দেখিয়ে মুখ বন্ধ করে দেন হুমকি প্রদান করেন চাচা ভাতিজা। এতে আমরা তাদের কাছে এক প্রকার জিম্মি হয়ে পড়েছি। মসজিদটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম জানান, মসজিদের পাশে দোকান বসিয়ে মোটা অংকের এডভ্যান্স ও ভাড়া তুলে আব্দুল জব্বার ও তার ভাতিজা। পকেট কমিটি বানিয়ে নিজেদের দীর্ঘদিন ধরেই মসজিদের নামে দূর্নীতি করছেন তারা। কমিটিতে আমি ছিলাম, তাদের ভয়াবহ দূর্ণীতির কারণে কমিটির থেকে আমি সরে গিয়েছি। তিনি বলেন, প্রশাসন চাইলে এই দূর্নীতির অবসান ঘটবে। এ বিষয়ে মসজিদ কমিটির সভাপতি আব্দুল জাব্বার বলেন, আমরা কোন অনিয়ম দূর্নীতির সাথে জড়িত নই। কোন অন্যায় করিনি। আমাদের বিরুদ্ধে একটি পক্ষ ষড়যন্ত্র করছে। এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মশিউর রহমান জানান, আল্লাহর ঘর মসজিদের নামে যারা চাঁদাবাজি, ও ধর্মের নাম ব্যবহার করে মসজিদের টাকা লোপাট করবে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মুস্তাইম বিল্লাহ জানান, চিটাগাংরোডে অবস্থিত বাইতুস সুজুদ নামে একটি মসজিদ কমিটির নামে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি, শিঘ্রই ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দেন তিনি।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *