Home » প্রথম পাতা » শ্রী কৃষ্ণের জন্মাষ্টমী আজ

মাদক ব্যবসায়ী বিটু গ্রেফতার

১৩ জানুয়ারি, ২০২২ | ৫:২৩ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 125 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

নারায়ণগঞ্জ জেলার আলোচিত মাদক ব্যবসায়ী ও একাধিক মামলার আসামী সালাউদ্দিন চৌধুরী বিটুকে র‌্যাব-১১ গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করেছে। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে র‌্যাব-১১’র একটি টিম সালাউদ্দিন চৌধুরী বিটুকে তার নিজ বাসভবন নলুয়াপাড়া থেকে গ্রেফতার করে নিয়ে আসে এবং বুধবার দুপুরে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। গত ৩ ডিসেম্বর নারায়াণগঞ্জ সদর মডেল থানার ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠানে ১৮নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোঃ কবির হোসেন নারায়াণগঞ্জ পুলিশ সুপারের কাছে সালাউদ্দিন বিটুর হাত থেকে ১৮নং ওয়ার্ডবাসীকে মাদক থেকে নিস্তার চেয়ে বলেন, আমাদের এলাকা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা। আমার ১৮নং ওয়ার্ডের সীমানা যেখানে শেষ সেখানে গোগনগর ইউনিয়নের শুরু আবার আমার যেখান থেকে শুরু সেখানে গোগনগর ইউনিয়নের সীমানা শেষ। আর এই এলাকাই হচ্ছে মাদকের সয়লাব। আর এই দুই এলাকায় তার মাদকের সয়লাব সে হচ্ছে সালাউদ্দিন বিটু। অনেক সময় গ্রেফতার হয়েছে। এখন আছে বিভিন্ন প্রার্থীর সাথে আতাত করছে। সামনে নির্বাচন সেখানে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার লক্ষ্যে। আপনার কাছে এখন অনুরোধ থাকবে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবার জন্য। তবে সূত্রমতে জানা যায়, গভীর রাতে র‌্যাবের একটি টিম নলুয়াপাড়া বিটুর নিজস্ব বাসভবন থেকে একটি প্রক্রিয়াধীন মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে নিয়ে আসে। সূত্র আরো জানায়, বর্তমান কাউন্সিলর মোঃ কবির হোসেন ও সাবেক কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্নার নির্বাচনী প্রচারণা নিয়ে চলছে দৌঁড়ঝাপ বেশি। একে অপরের বিরুদ্ধে করে চলছিলেন বিরুদ্বাচারন। তবে এলাকায় এলাকায় গিয়েও চাচ্ছেন উভয়ই ভোট ভোটারদের কাছে। সালাউদ্দিন চৌধুরী বিটুর বিরুদ্ধে নারায়াণগঞ্জ থানায় রয়েছে অর্ধশতাধিক মাদক সহ বিভিন্ন চাঁদাবাজি মামলা। অন্যদিকে রানা হচ্ছে মেহেদী হত্যা মামলার প্রধান আসামী। নারায়াণগঞ্জ সদর থানার সোর্সের মাধ্যমে জানা যায়, গত ১ বছরে নারায়াণগঞ্জ শহরের তামাকপট্টির আবিদ আলী চৌধুরী ওরফে হাবলু চৌধুরীর ছেলে সালাউদ্দিন চৌধুরী বিটুকে মাদক মামলায় ২ বার গ্রেফতার করা হয়। উল্লেখ্য যে, নারায়ণগঞ্জ শহরের তামাকপট্টি এলাকার আবিদ আলী চৌধুরী ওরফে হাবলু চৌধুরীর ছেলে সালাউদ্দিন চৌধুরী বিটু ওরফে সালাউদ্দিন বিটু। ২০১৭ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি রাতে ৫০০ পিস ইয়াবাসহ শহরের নিতাইগঞ্জ তামাকপট্টি এলাকার শুক্কুর মিয়ার রিকশার গ্যারেজ থেকে ডিবির হাতে গ্রেফতার হয় বিটু। একই বছরের ১৯ আগস্ট বিটুকে সাড়ে ৩০০ পিস ইয়াবাসহ তামাকপট্টি থেকে গ্রেফতার করে ডিবি। বিটু এর আগেও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কদমতলী থানায় সাড়ে ৫০০ পিস ফেনসিডিলসহ গ্রেফতার হয়। গত বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি সালাউদ্দিন বিটুর সেকেন্ড ইন কমান্ড বুইট্টা সুজন, শাহীন ও আরিফকে ৬০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ আটক করে সদর মডেল থানা পুলিশ। এরপর গা-ঢাকা দেয় মাদক বিক্রেতা সালাউদ্দিন বিটু। পরবর্তীতে তিনি আবারো এলাকাতে ফিরে এসে মাদক ব্যবসা শুরু করে।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *