আজ: মঙ্গলবার | ২রা জুন, ২০২০ ইং | ১৯শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ১০ই শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী | দুপুর ২:৩৭

সংবাদের পাতায় স্বাগতম

মাদ্রাসার শিক্ষার্থী খুন

ডান্ডিবার্তা | ১৯ মে, ২০২০ | ১:১৬

আড়াইহাজার প্রতিনিধি
আড়াইহাজারে মাহবুব (১৫) নামে এক মাদ্রাসার শিক্ষার্থীকে খুন করা হয়েছে। সে হাইজাদী ইউনিয়নের সেন্দী এলাকার আসকর আলীর ছেলে। সে নারায়ণগঞ্জের মদনপুর এলাকায় অবস্থিত বন্দর মাদ্রাসায় প্রথম ক্লাসের ছাত্র ছিলেন বলে জানা গেছে। সোমবার সকাল ৮টায় খবর পেয়ে পুলিশ সেন্দী এলাকায় ধান ক্ষেতে পড়ে থাকা অবস্থায় লাশ উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জের ভিক্টোরিয়া হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। এদিকে মৃতের গলায় আঘাতে গভীর ক্ষতচিহৃ রয়েছে বলে জানিয়েছেন সুরতহাল প্রতিবেদনকারী কর্মকর্তা। হত্যাকান্ডের শিকার ব্যক্তি গত রোববার সন্ধ্যায় সে নিখোঁজ হয়। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে সৈকত (১৮) নামে এক যুবককে তার নিজ এলাকা থেকে জনতা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছেন। সে একই এলাকার বিল্লালের ছেলে। পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, চাড়া দিয়ে জুয়া খেলার পাওনা টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরেই হত্যাকান্ডের এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। মৃতের ভাই আবুল হাসনাত জানান, গত রবিবার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের পর সে মাদ্রাসা থেকে বাড়িতে চলে আসে। রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বড় ভাই আবু তৈয়ব মোবাইলে ফোনে জানায় তাকে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে অনেক খোঁজাখুঁজি করা হয়। তিনি আরও বলেন, আমি লোকমারফত জানতে পেরেছি চাড়া দিয়ে জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে তার সঙ্গে স্থানীয় কয়েকজন যুবকের সঙ্গে দ্বন্দ্ব ছিল। গতকাল সোমবার সকালে খবর পেয়ে থানায় এসে মাহবুবের লাশ শনাক্ত করা হয়েছে। লাশের সুরতহাল প্রতিবেদনকারী কর্মকর্তা এসআই এস আই রোকনউদজ্জামান বলেন, আটক যুবককে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে মৃতের সঙ্গে তার চাড়া দিয়ে জুয়া খেলার পাওনা টাকা নিয়ে দ্বন্দ্ব ছিল। আড়াইহাজার থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, জুয়া খেলার টাকা পাওনা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে হত্যাকান্ড ঘটেছে বলে আটক যুবককে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে। তবে তাকে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তার সঙ্গে আরও কারা জড়িত রয়েছে। তাদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *