Home » প্রথম পাতা » ওসমান পরিবারের সাথে কোন দ্বন্দ্ব নেই: আইভী

মার্কেটে বাচ্চা নিয়ে আসা যাবে না

০৭ মে, ২০২০ | ১১:৫৮ অপরাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 1076 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
করোনার এপিসেন্টার নারায়ণগঞ্জে ১০ মে থেকে খুলছে দোকানপাট। সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত মার্কেট খোলা রাখার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন। তবে শিশুদের নিয়ে মার্কেটে যাওয়া যাবে না বলে জানিয়েছেন জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে জেলার ব্যবসায়ী নেতাদের সাথে করোনা প্রতিরোধ কমিটির জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৈঠক সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। সভায় যুক্ত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) রেবেকা সুলতানা, র্যাব-১১ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার, বিজিবির নারায়ণগঞ্জ ক্যাম্পের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্ণেল আল আমিন, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার সালেহ উদ্দিন আহেমদ, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, বাংলাদেশ হোসিয়ারি এসোসিয়েশনের সহসভাপতি মো. কবির হোসেন, জেলা দোকান মালিক সমিতির প্রতিনিধিসহ অনেকেই। সভায় জেলা প্রশাসক বলেন, ঢাকার কিছু মার্কেট খুলবে না। এ জেলায় যারা খুলবেন না তারা জানাবেন, তাদেরকে সাধুবাদ জানাবো। ভলান্টিয়ারের পরিচয়পত্র দিতে হবে। এ বিষয়ে সিটি কর্পোরেশনের সহায়তা নেয়া যেতে পারে। তিনি আরও বলেন, বাচ্চা নিয়ে মার্কেটে আসা যাবে না। এ বিষয়ে জেলা তথ্য অফিস, চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এবং মার্কেট মালিক সমিতি আগামী কাল হতে মাইকিংয়ের ব্যবস্থা করতে হবে। প্রাইভেট গাড়ি নিয়ে মার্কেটে আসা যাবে না। মার্কেটে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, হাত ধোয়া এবং স্প্রে করার বিষয়ে মার্কেট কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নেবেন। মালামাল লোড-আনলোড বিষয়ে পুলিশ সুপার এর সাথে সমন্বয় করে ব্যবস্থা নিতে হবে। মালামাল অন্য জেলায় নেয়া এবং বড় আর্থিক লেনদেন এর বিষয়ে পুলিশ সুপার এর সহায়তা নিতে হবে। দোকান খোলার বিষয়ে সকল কার্যক্রম আজ এবং আগামীকালের মধ্যে শেষ করতে হবে। সভায় সিদ্ধান্তের বিষয়ে জেলা দোকান মালিক সমিতির সভাপতি মো. শাহ্জাহান বলেন, আগামী ১০ মে থেকে দোকানপাট খোলার অনুমতি রয়েছে। সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত দোকান খোলা রাখা যাবে। এছাড়া আগামী দুইদিন নারায়ণগঞ্জে মাইকিং করতে হবে। মার্কেটে আসা লোকজন যেন সাথে তাদের বাচ্চাদের নিয়ে না আসেন সে বিষয়ে মাইকিং করতে হবে। এছাড়া হাত ধোয়ার জন্য সাবান-পানির ব্যবস্থা রাখতে হবে। প্রতি মার্কেটের সামনে স্বেচ্ছাসেবী রাখার জন্যও নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বিক্রয়কর্মীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। এসব শর্ত মেনেই দোকান খোলা যাবে। তিনি আরও বলেন, মালামাল আনলোড করার বিষয়েও শর্ত রয়েছে। রাত ৮টার মধ্যে মালামাল আনা শেষ করতে হবে। তবে মালামাল বাইরে যেতে পারবে না।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *