আজ: শনিবার | ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২রা সফর, ১৪৪২ হিজরি | রাত ৯:০৭

সংবাদের পাতায় স্বাগতম

র্যাবের জালে গাড়ি চুরি চক্রের দুই সদস্য

ডান্ডিবার্তা | ২৪ জুলাই, ২০২০ | ১০:৪৩

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে মো. কামাল হোসেন (৩৮) ও মো. ইমরান (৩৯) নামে গাড়ি চুরি চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র্যাব। বুধবার দিবাগত রাতে সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে র্যাব-১১ এর একটি অভিযানকারী দল। পরে তাদের কাছ থেকে একটি চোরাই পিকআপ গাড়ি জব্দ করে র্যাব। গতকাল বৃহস্পতিবার র্যাব-১১ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দীন চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানানো হয়। র্যাব জানায়, ২২ জুলাই দিবাগত রাতে র্যাব-১১ টানা ৩০ ঘন্টার বিশেষ অভিযানে সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকা হতে সংঘবদ্ধ গাড়ী চুরি চক্রের মো. কামাল হোসেন (৩৮) ও মো. ইমরান (৩৯) নামে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক সিদ্ধিরগঞ্জ গোদনাইল এলাকা হতে চোরাইকৃত ১টি পিকআপ গাড়ি উদ্ধার করা হয়। পিক-আপ গাড়িটি গত ২০ জুলাই কুমিল্লা জেলার বরুড়া থানা এলাকা থেকে চুরি করে নারায়ণগঞ্জে নিয়ে এসে গাড়ির মালিকের কাছে ফোন করে বিকাশের মাধ্যমে টাকা দাবি করা হয়। এই ঘটনায় কুমিল্লা জেলার বরুড়া থানায় একটি নিয়মিত মামলা রুজু হয়। র্যাব আরো জানায়, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ ও অনুসন্ধানে জানা যায়, তারা একটি সংঘবদ্ধ চোর চক্র। এই চোর চক্রের সদস্যরা পরস্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবৎ দেশের বিভিন্ন জেলা হতে গাড়ি চুরি করে নারায়ণগঞ্জে নিয়ে আসে। পরবর্তীতে গাড়ির বডি বা ডকুমেন্ট হতে চালক বা মালিকের নাম্বার সংগ্রহ করে ফোন করে বিকাশের মাধ্যমে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করে। দাবিকৃত টাকা ফেরত পেলে অনেক সময় গাড়ি ফেরত দেয়, অন্যথায় চোরাই গাড়ি বিক্রি করে দেয়। র্যাব-১১ এর অনুসন্ধানে চুরি সংক্রান্ত ঘটনার সত্যতা পেয়ে চোর চক্রকে সনাক্তকরণ ও জড়িতদের আইনের আওতায় আনার জন্য গত ২১ জুলাই বিকালে অভিযান শুরু করে ২২ জুলাই ২০২০ইং সন্ধ্যায় সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল এলাকা হতে চোরচক্রের মূলহোতাসহ ২জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে কুমিল্লা জেলার বরুড়া থানায় আইনানুগ কার্যক্রম গ্রহণের জন্য হস্তান্তর কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *