আজ: শুক্রবার | ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ৮ই সফর, ১৪৪২ হিজরি | সকাল ৮:৪৫

সংবাদের পাতায় স্বাগতম

শামীম-বাবুর সমর্থন চায় কায়সারের প্রার্থী

ডান্ডিবার্তা | ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ৭:৩৯

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
সোনারগাঁ পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সম্ভাব্য প্রার্থীরা নিজেদের পক্ষে প্রচার প্রচারণা শুরু করেছেন। সেই সাথে দলীয় প্রার্থীতা নিয়েও নানা সমীকরণ পরিলক্ষিত হয়ে উঠছে। সম্ভাব্য প্রার্থীরা প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দদের আশ্রয় নেয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। আর প্রভাবশালী রাজনীতিবিদরাও প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সম্ভাব্য প্রার্থীদের সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন। এরই মধ্যে অনেকে আবার বলয় পরিবর্তন করে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের মধ্যেই অন্যতম একজন হলেন ফজলে রাব্বী। যিনি বিগত পৌরসভা নির্বাচনে সোনারগাঁ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত ও আড়াইহাজার আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুর সমর্থনে দলীয় মনোনয়ন তথা নৌকা প্রতিক পেয়েছিলেন। কিন্তু এবার সেই ফজলে রাব্বী আড়াইহাজার আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু ও ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের সমর্থন নিয়ে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। জানা যায়, সোনারগাঁ পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গত রোববার বিকালে পৌর এলাকার ৯নং ওয়ার্ডের সাহাপুর এলাকায় ফজলে রাব্বীর পক্ষে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। নাজিম প্রধানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী যুব আইনজীবী পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট এটি ফজলে রাব্বী। ওই মতবিনিময় সভার ব্যানারে ছিল ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান ও আড়াইহাজার আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবুর ছবি। যার মাধ্যমে ফজলে রাব্বী প্রমাণ করার চেষ্টা করছেন তিনি শামীম ওসমান ও নজরুল ইসলাম বাবুর সমর্থিত প্রার্থী। এসময় ফজলে রাব্বী বলেন, আমি সোনারগাঁ পৌরসভার আগামী নির্বাচনে নৌকা প্রতিক নিয়ে আপনাদের সহযোগিতায় আবারো গণজোয়ার তুলে বিজয়ী হয়ে উন্নয়ন কার্যক্রমে সবার পাশে থাকতে চাই। এর আগে গত ১১ সেপ্টেম্বর দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মত বিনিময় সভার আয়োজন করে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ পৌরসভার আগামী নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থী হওয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন গাজী মুজিবুর রহমান। তার পক্ষে ওই সভায় উপস্থিত ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল কায়সার সহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা। সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে আব্দুল্লাহ আল কায়সার বলেন, পৌরসভা নির্বাচনে যে কোনো মূল্যে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ করে মেয়র পদে গাজী মুজিবুর রহমানের পক্ষে কাজ করবো। এর আগে তিনি ২০১৫ সালের পৌরসভা নির্বাচনে ফজলে রাব্বীকে নিয়ে মাঠে নেমেছিলেন কায়সার হাসনাত। ওই সময় আড়াইহাজার আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু ও সাবেক সংসদ সদস্য কায়সার হাসনাত রীতিমত মনোনয়ন যুদ্ধে নেমেছিলেন ফজলে রাব্বীর পক্ষে। এই দুইজন মিলে তুমুল লড়াইয়ের পর ফজলে রাব্বীর হাতেই মনোনয়ন আসছিল নৌকা প্রতীকের। কিন্তু শেষ পর্যন্ত জয় পাননি ফজলে রাব্বী। এবার সেই ফজলে রাব্বী সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাতকে ছেড়ে সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু ও শামীম ওসমানের সমর্থন পাওয়ার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *