Home » শেষের পাতা » বন্দরে ২৭টি পূজামন্ডপে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি

সরকার নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে ভয় পায়

০৪ জানুয়ারি, ২০২২ | ৮:২২ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 96 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম (শায়েখে চরমোনাই) বলেন, ভোট মানে সহযোগিতা করা, সমর্থন করা। তার ভাল-মন্দের দায়ভার নিতে হবে। কোন চোরকে যদি চুরি করতে সহযোগিতা করা হয় এবং সেই চোরের নামে মামলা হলে তাহলে তার সহযোগীরও নামেও মামলা হয়। সুতরাং আমাদের ভোটে নির্বাচিত হয়ে কোন ব্যক্তি রাষ্ট্রীয় সম্পদ চুরি করলে, দুর্নীতি করলে তার অংশীদার আমাকেও হতে হবে। তাই আগামী নির্বাচনে সৎ, যোগ্য ও ভাল মানুষকে নির্বাচিত করতে হবে। ফলে, তার ভাল কৃতকর্মের সওয়াব আমিও পাবো। গতকাল সোমবার বিকাল ৪ টায় মুফতি মাসুম বিল্লাহর নির্বাচনী পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, আওয়ামীলীগ সরকার আজ জনবিচ্ছিন্ন। তারা নিরপেক্ষ নির্বাচন দিতে ভয় পায়। তারা বুঝতে পেরেছে তাদের ভোটের হাড়ি শূন্য হয়ে গিয়েছে। বিভিন্ন জায়গায় তাদের চরম বিপর্যয় হয়েছে। চরমোনাই ইউনিয়নে বিএনপির সাথে জোট করেও ৩৫৫০ ভোটে পরাজয় হয়েছে। তাই তারা ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য জনগণের ভোটাধিকার হরণ করে নিয়েছে। আমাদের প্রার্থীদেরকেও বিভিন্ন জায়গায় হুমকি ধমকি ও মারধরসহ তাদের বাড়ীঘর আগুন লাগিয়ে নির্বাচনের মাঠ দখল করে রাখছে। আমরা জোর দাবি জানাচ্ছি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করুন। পথসভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ মহানগর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক মাও. দ্বীন ইসলাম, দীনি সংগঠন নারায়ণগঞ্জ জেলার ছদর মাওলানা মজিবুর রহমান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সেক্রেটারি সুলতান মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মাও. শামসুল আলম, প্রচার সম্পাদক বিলাল খান, মহিলা ও পরিবার বিষয়ক সম্পাদক মাও. আব্দুল হান্নান, ইশা ছাত্র আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সভাপতি এম শফিকুল ইসলাম, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ মহানগরের সভাপতি ও ১৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সির পদপ্রার্থী আলহাজ্ব শেখ মুহা. হাসান আলী, শহর শাখার আন্দোলনের সভাপতি আলহাজ্ব আঃ হাই, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সভাপতি বিল্লাল হোসেন, বন্দর থানার সভাপতি আবুল হাশেম সহ থানা ও ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ। শায়েখে চরমোনাই আরও বলেন, যারা আলেমদের লেবাস ধরে সেক্যুলার, গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র ও ধর্মনিরপেক্ষতাবাদের সমর্থকদেরকে সাপোর্ট করে, তাদের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে তারা মৌলভী নয়; মৌ-লোভী। এদের থেকে সাবধান থাকতে হবে। মেয়র প্রার্থী মুফতি মাসুম বিল্লাহ বলেন, হাতপাখার বাতাস দিয়ে আমরা শহর থেকে সকল অন্যায় ও দুর্নীতি দূর করে দিব, ইনশাআল্লাহ। পথসভা শেষে শহরে মাসুম বিল্লাহর হাতপাখার গণসংযোগ করেন শায়েখে চরমোনাই।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *