Home » প্রথম পাতা » শ্রী কৃষ্ণের জন্মাষ্টমী আজ

সাবেক ও বর্তমান ছাত্রনেতাদের প্রশংসা কেন্দ্রের মতবিনিময় সভায়

০৩ জুলাই, ২০২২ | ৬:২৬ অপরাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 139 Views
নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সাথে মতবিনিময় সভায় জেলার সাবেক প্রভাবশালী নেতাদের কথা স্মরন করেছেন কেন্দ্রীয় নেতারা। পাশাপাশি বর্তমান নেতাদের কাজের প্রশংসাও করেছেন তারা। তারা বর্তমানে নেতাদের কাছে সাবেক সেসব নেতাদের উদাহরণ হিসেবে তুলে ধরে কেন্দ্রের প্রত্যাশা জানিয়েছেন।
সাবেক যুবদল নেতা নিহত মমিন উল্লাহ ডেবিড, জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি জাকির খান ও মাসুকুল ইসলাম রাজীবের মত নেতৃত্ব বর্তমান নেতাদের কাছে প্রত্যাশা করেছেন কেন্দ্রীয় নেতারা। তাদের মত কিংবা তাদের চেয়ে ভালো নেতৃত্ব বর্তমান নেতারা দেবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন তারা।
এ ছাড়া জেলা ছাত্রদলের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক খাইরুল ইসলাম সজীবসহ অনেকে ভালো কাজ করছেন জানিয়ে সক্রিয়দের বাহবা দিয়েছে কেন্দ্র।
কেন্দ্রের নেতাদের মতে, রনি সজীব কমিটির সময় ঢাকায় কর্মসূচিগুলোতে সবচেয়ে বড় অংশগ্রহণ হতো নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের। পরবর্তীতে মানিক সজীব কমিটির সময় কিছুটা গ্রুপিং হলেও সেই নেতৃত্ব ধরে রাখেন সজীব। সজীবের এ অংশগ্রহণ ও সক্রিয়তা ভিন্ন আঙ্গিকে প্রশংসিত হয় নেতাদের মুখে।
শনিবার (২ জুলাই) দলের নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ছাত্রদলের অফিসে জেলা ছাত্রদল ও জেলার অন্তর্গত বিভিন্ন ইউনিট ছাত্রদলের নেতাদের সাথে মতবিনিময় করেন কেন্দ্রীয় ছাত্রদল। এতে জেলা ছাত্রদল ও ইউনিটের নেতাদের মতামত শোনেন কেন্দ্রীয় সভাপতি কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবন ও সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ জুয়েল।
সভায় নেতাকর্মীরা তাদের বক্তব্যে বিগত দিনের নানা বিষয় তুলে ধরে দ্রুত নতুন কমিটি ঘোষণা, সেই কমটিতে রাজপথের নেতাদের মূল্যায়ন করা সহ নানা বিষয় তুলে ধরেন। কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক তাদের কথা মনোযোগ দিয়ে শোনেন এবং ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের নানা বিষয়ে দিক নির্দেশনা দেন।
সভায় কেন্দ্রীয় সভাপতি কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবন বলেন, নারায়ণগঞ্জে যোগ্য সাবেক নেতা মমিনউল্লাহ ডেবিড, জাকির খান, মাসুকুল ইসলাম রাজীবের মত নেতাদের অনুসরণ করতে হবে। তাদের মত সাংগঠনিক, দক্ষ, দলের প্রতি ত্যাগী কিংবা তাদের চেয়ে ভালো নেতৃত্ব আগামীতে যারা দায়িত্ব পাবেন তারা উপহার দেবেন বলে আমরা বিশ্বাস করি। ছাত্রদলে অনেকে অনেক কাজ করছেন। আগামীতে যারা পদ পদবি পাবেন তারা সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবেন।
এসময় জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক খাইরুল ইসলাম সজীব বলেন, আমাদের কমিটি চার বছর পার করছে। আমরা নতুনদের হাতে নেতৃত্ব দিয়ে যেতে চাই। আমরা ভাগ্যবান কারণ আমরা তিনটি কেন্দ্রীয় কমিটি পেয়েছি। রাজীব-আকরাম ভাই, শ্যামল খোকন ভাই ও শ্রাবন-জুয়েল ভাইয়ের কমিটি আমরা পেয়েছি। আমরা একটি বড় কর্মী সম্মেলনের মাধ্যমে সেখানে কেন্দ্রীয় সুপার ফাইভের উপস্থিতিতে বিদায় নিয়ে নতুন কমিটির হাতে নেতৃত্ব তুলে দিতে চাই।
এসময় তার এ প্রস্তাবনা ছাত্রদলের সাংগঠনিক অভিভাবক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের সাথে আলোচনা করা হবে বলে জানায় কেন্দ্র।
জানা গেছে, ২০১৮ সালের ৫ জুন সর্বশেষ জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের আংশিক কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্র। পরে দুটো কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা হয়। দুটি কমিটি বর্তমানে মেয়াদোত্তীর্ণ।
জেলা ছাত্রদলের আংশিক কমিটির সভাপতি ছিলেন মশিউর রহমান রনি ও সাধারণ সম্পাদক ছিল খাইরুল ইসলাম সজীব। মহানগরের সভাপতি ছিলেন শাহেদ আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক ছিলেন মমিনুর রহমান বাবু। এদের মধ্যে রনি বর্তমানে ছাত্রদল ছেড়ে জেলা যুবদলের সদস্য সচিব পদে দায়িত্ব পালন করছেন। তার স্থানে পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সভাপতি করা হয়েছে আরিফুর রহমান মানিককে।
নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের ৫৯২ সদস্যের বিশাল আকারের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হয় ৩০ মার্চ রাতে।

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *