Home » প্রথম পাতা » ওসমান পরিবারের সাথে কোন দ্বন্দ্ব নেই: আইভী

সিদ্ধিরগঞ্জে কিশোরগ্যাং’র বিরুদ্ধে মামলা

০৬ ডিসেম্বর, ২০২১ | ৭:৩৩ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 30 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

সিদ্ধিরগঞ্জের মুক্তিনগর এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ৩’যুবককে ধাঁরালো অস্ত্রদিয়ে কুপিয়ে আহত করেছে কিশোরগ্যাং সস্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হলে এজহারভূক্ত এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মামলা সূত্রে জানা যায়, নয়াআটি মুক্তিনগর এলাকার মো. হারুন মোল্লার ছেলে হাবিব(২৫), মো. অলিউল্লার ছেলে পরশ(২৪), মো. লতিফের ছেলে রফিকুল ইসলাম তুষার(২৭), হিরনের ছেলে যুবরাজ(২১), হাতুরি লিটনের ছেলে আবির(২০), মাদানীনগর এলাকার মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে সাইফুল ইসলাম(২০), কবিরের ছেলে রাজু(১৮), নিজাম উদ্দিনের ছেলে সাগর(১৮)সহ অজ্ঞত ৪/৫’জন সঙ্গবদ্ধ হয়ে চাইনিজ কুরাল, দাঁ, ছুরি, সুইস গিয়ার ও লাঠি সোটাসহ গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৭’টার দিতে মুক্তিনগর এলাকার আনোয়ার হোসেন আনু’র বাড়[ীর সামনে গিয়ে সোহাগ(১৮), শাওন(১৭) ও সিয়াম(১৮)’র উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারিরা সোহাগের মাথায় ও শাওন, সিয়মকে এলোপাতারী কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। তাদের আত্বচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে হামলাকারিরা নানা হুমকি দিয়ে চলে যায়। যাওয়ার সময় সোহাগের কাছ থেকে ১৪’হাজার টাকা দামের একটি স্যামসাং মোবাইল সেট ও পকেটে থাকা সাড়ে ১০’হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। সন্ত্রাসীরা চলে যাওয়ার পর গুরুতর আহত সোহাগকে প্রথমে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় পরদিন শনিবার আহতের বড় ভাই সুজন বাদী ৮’জনকে এজহারনামীয় আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ মামলার সাগর নামে এক আসামিকে গ্রেফতার করেন। অভিযোগ জানাগেছে, এ মামলার আসামীরা এলাকায় কিশোরগ্যাং সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত। তার এলাকায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ড মাদক ব্যবসা, চুরি, ছিনতাইসহ নানা অপকর্ম করে বেড়ায়। তাদের অপকর্মের বিরুদ্ধে কেহ প্রতিবাদ করলে মারধর ও হুমকি ধামকি দেয়। তারা গভীর রাত পর্যন্ত এলাকার অলিগলিতে মোটরসাইকেল দিয়ে মোহড়া দিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। ফলে তাদের ভয়ে কেহ প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না। অভিযাগ রয়েছে এসব সন্ত্রাসীরা এর আগেও বিভিন্ন লোকজনকে মারধর করে আহত করেছে। এসব ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা হলেও বীরদর্পে তাদের অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্ত উপ-পরিদর্শক নুর ই আলম সিদ্দিকী জানান, এক আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *