Home » প্রথম পাতা » পদ্মা সেতু জাতির আরেক বিজয়

১৩ নং ওয়ার্ড নিয়ে চলছে সমিকরণ

৩০ নভেম্বর, ২০২১ | ৯:২৬ পূর্বাহ্ণ | ডান্ডিবার্তা | 132 Views

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

আগামী বছরের জানুয়ারী মাসে সম্ভব্য অনুষ্ঠিত হতে পারে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন। এরই ধারাবাহিকতায় নির্বাচনে অংশগ্রহন করার জন্য বর্তমান কাউন্সিলর ও সম্ভব্য প্রার্থীরা ভোটারদের কাছে নিজেদের অবস্থান সর্ম্পকে জানান দিচ্ছেন বেশ জোড়ে সোড়ে। এবারের নাসিক নির্বাচনে মেয়রপদে অংশগ্রহন করবে না বড় রাজনৈতিক দল বিএনপি বলে ধারণা করছেন শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ। তবে শেষ বেলায় সিদ্ধান্ত পরির্বতনের আবাসকেও উড়িয়ে দেয়া যায় না। এদিকে, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডে নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন দলমত নির্বিশেষে সব দলের নেতারা। নির্বাচনে ভোটের লড়াইয়ে বর্তমান কাউন্সিলররা শেষ বেলায় সকলেই বিজয়ের মালা পরতে পারবেন কি? তা দেখতে অপেক্ষা করতে হবে আরও কিছু দিন। এদিকে, নাসিক ২৭টি ওয়ার্ডের মধ্যে আধুনিক ও সার্বিক সুবিধার দিক দিয়ে এগিয়ে ১৩নং ওয়ার্ড। যেখানে সবচেয়ে ভোটার সংক্ষ্যা বেশি বলে অনেকেরই দাবি। এই ওয়ার্ডে এখনও বেশ শক্ত অবস্থানে রয়েছেন করোনা বীর খ্যাত বর্তমান কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ। যদিও তিনি গতবার নির্বাচনী প্রচারোনায় ঘোষণা দিয়ে ছিলেন এটাই তার শেষ নির্বাচন। এরপর আর ভোটের লড়াইয়ে কাউন্সিলর পদে অংশগ্রহন করবেন না তিনি। কিন্তু কথায় আর কাজে মিল রাখলেন না শেষ বেলায়। ইতিমধ্যে তিনিও ঘোষণা দিয়েছেন নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার। তবে ওয়ার্ডবাসীকে তিনি যে সেবা দিয়ে আসছেন সেদিক নজর দিলে। গত নির্বাচনের ঘোষণাকে কানে নিবেন না ভোটারা এমনটাই দাবি সচেতন মহলের। অপরদিকে, মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রবিউল হোসেন একাধিকবার একই ওয়ার্ডে নির্বাচনে অংশগ্রহন করলেও ভোটের লড়াইয়ে বিজয়ের মালা গলায় নিতে পারেননি। তবে নিজের অবস্থান রেখেছেন ২য় স্থানে। তিনিও গতবার নির্বাচনে ঘোষণা দিয়ে ছিলেন কাউন্সিলর পদে আর নির্বাচন করবেন না। তবে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে এবারও তিনি প্রার্থী হচ্ছেন ভোটের লড়াইয়ে। এখন দেখার বিষয় এবার কি পারবেন বিজয়ের মালা গলায় নিতে।এই দুই হেভীওয়েট প্রার্থী ছাড়াও নির্বাচনী লড়াইয়ে প্রতিবারই অংশগ্রহন করেছেন যুবলীগ নেতা ফয়েজ উল্লাহ ফয়েজ ও এ্যাড. আনোয়ার প্রধান। শেষ বেলায় ফয়েজ উল্লাহ ফয়েজ রবিউল হোসেনকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সড়ে দাড়ালেও নিজের জায়গায় অটুট থাকেন এ্যাড. আনোয়ার প্রধান। গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে এবার নির্বাচনে তারাও প্রার্থী হবেন। এই একই ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে একাদিক নতুন মোখ প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিলেও তাদের মধ্যে সমাজ সেবা মূলক কাজে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছেন কাজী রবিন। পেশাগত ভাবে একজন কাজী হলেও ব্যবসায়ীক হিসেবে পরিচিত। যিনি বিভিন্ন সমাজ সেবামূলক কাজে নিয়োজিত থাকার কারনে এলাকার অনেকেই তাকে প্রার্থী হিসেবে দেখার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও তরুন ও উদীয়মান সাবেক নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের কার্যকরী সদস্য সায়েক শহীদ রেজা তিনিও নাসিক ১৩নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার আশা প্রকাশ করেছেন। ইতিমধ্যেই সাংগঠনিক দক্ষতায় রাজনৈতিক মহলে নিজেকে আলোচনায় রেখেছেন। এছাড়াও এলাকায় সামাজিক কার্যক্রমে নিজেকে সব সময় নিয়েজিত রেখেছেন নিষ্ঠার সাথে। তরুন সমাজে তার রয়েছে বেশ গ্রহন যোগ্যতা। এবারের নির্বাচনে তিনিও প্রার্থী হবেন বলে প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এখন দেখার বিষয় নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করার পর কারা হবে কাউন্সিলর প্রার্থী তা দেখতে অপেক্ষা করতে হবে আর কিছু দিন।

 

Comment Heare

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *