বিএনপিতে ত্যাগীরা অবমূল্যায়িত

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর হতাশাগ্রস্থ নারায়ণগঞ্জে বিএনপির নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করে তুলতে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেয়া…

Read More

উন্নয়নের পথে ধাবিত হচ্ছে নারায়ণগঞ্জ

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর আধুনিক নারায়ণগঞ্জ গড়তে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নে কাজ করছেন নারায়ণগঞ্জের পাঁচটি আসনের সাংসদরা।…

Read More

খোরশেদ বিরোধী দেড়‘শ একাট্টা

  ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট প্রথম সাংগঠনিক সভায় সুপার ফøপ করেছে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের সভা। গত রোববার বিকেল ৪ টায় তার নিজ বাস ভবনে সাংগঠনিক সভার কমিটির ২০১জনকে চিঠি দিয়ে উপস্থিত থাকার আহবান করলেও তাতে সাড়া দেননি অনেকেই। পুরো আলোচনা সভায় কমিটি ও এর বাইরের কর্মী মিলে উপস্থিত ছিলেন ৮৫ জন। এরমধ্যে ২০১ সদস্য কমিটির ছিলেন মাত্র ৩৬ জন। কমিটিতে উপস্থিত না হাওয়ার কারণে সম্পর্কে অনেকেই দাবি করেছেন, বিএনপির রাজনীতি করে লাভবান খোরশেদটাকার বিনিময় কমিটি বিক্রি করে। আর যাই হউক তার মত লোভী নেতার কাছে দল বা সংগঠন কখনই নিরাপদ না। কারন টাকার বিনিময় তারা অযোগ্য লোকদেরকাছে কমিটির দায়িত্ব দিচ্ছে। তাছাড়া পরিবারতন্ত্র ও খোরশেদের আর্শিবাদপুষ্টদের কমিটিতে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও এমন কিছু লোককে কমিটিতে রাখাহয়েছে যারা বিদেশে পাড়ি জমিয়েছে। আর তাদের তালিকায় এমন কিছু নেতা আছে যারা এবারের জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছে। মনোয়ার হোসেনশোখন বলেন, ২০১ সদস্য বিশিষ্ট মহানগর যুবদলের পুর্নাঙ্গ কমিটি করা হয়েছে সাংগঠনিক নিয়মনীতি না মেনে। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মিলে তারা কমিটিসাজিয়েছে সেখানে স্থান পেয়েছে পরিবার এবং খোরশেদের নিজেস্ব বলয়ের লোক। আর তাদের তালিকায় রয়েছে ফুটপাতের হকাররাও যাদেরকে গুরুত্বপুর্ন পদের দায়িত্বেরাখা হয়েছে। অথচ দুঃখ লাগে তাদের চেয়ে অনেক যোগ্য নেতা আছেন যারা খোরশেদের আগে রাজনীতিতে এসেছে। হকার হয়ে পদ পায় কারন তারা খোরশেদের অনুসারীআর যারা পদ পাননি তারা বিএনপির অনুসারী। যেখানে নেতা কর্মীদের মূল্যায়ন না করে নিজেদের অযোগ্য লোকদের স্থান দেয় কারো মতামত না নিয়ে সেখানে এক সাথেকাজ করা সম্ভব হয় না। তাই আমরা সেখানে উপস্থিত হইনি। সানোয়ার হোসেন বলেন, মহানগর যুবদলের প্রথম সাংগঠনিক সভা হলো যেখানে বন্দরের ৫/৬ জন সহ-সভাপতি ছিলেন একজন বাদে আর কেউ উপস্থিত হননি। আমি তাদের সবচেয়ে কাছের লোক ছিলাম তাদের সাংগঠনিক হীন কার্যক্রমের কারনে আমি সড়ে এসেছি।মহানগর যুবদলের যে কমিটি হয়েছে সেটা সাংগঠনিক নিয়ম মেনে হয়নি। আর যেখানে সাংগঠনিক নিয়মনীতির বাহিরে কাজ হয় সেখানে আমরা থাকবো না। সভাপতি ওসাধারণ সম্পাদক ছাড়া সুপার ৫ এর আর কেউ জানে না। তাদের বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি আগামী ৭ দিনের মধ্যে হয়তোবা আপনারা জানতে পাবেন। মনিরুল ইসলামমনু বলেন, সাংগঠনিক সভা আমি জানি না চিঠিও পাইনি আর যেভাবে মহানগর যুবদলের কমিটি হয়েছে সেটাতে আমরা খুশি না। কারন আমরা চেয়েছিলাম মহানগরেরআওতাধীন প্রতিটি থানা কমিটি থেকে ৫/৬ জন সিনিয়র নেতাদের কমিটিতে রাখা হউক। কারন আমরা বিরোধী দল তৃনমূলকে মূল্যায়ন করতে হবে। কিন্তু সে তৃনমূলকেমূল্যায়ন না করে উল্টো খারাপ আচরন করে। এছাড়াও বন্দর উপজেলা যুবদলের কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে নতুন কমিটি দিয়েছে যেটা আমরা জানি না। এটা সাংগঠনিক বিষয়নেতাকর্মীদের অবমূল্যায়ন  করা হয়েছে। আমাদের কোনো ভাই নাই আর আমরা এমপি-মন্ত্রী হতে আসি নাই। দেশকে ভালবেসে শহীদ জিয়ার আর্দশে অনুপ্রানিত হয়েরাজনীতিতে এসেছি। আহম্মেদ আলী বলেন, স্বৈরাতান্ত্রিক মনোভাব নিয়ে রাজনীতি চলে না। আমাদের দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে, দলের এখন দুঃসময়। এইসময় কমিটিতে পরিবার<span style=”line-height:115%” …

অপরাধী কাউকে ছাড় দিব না: এসপি

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট শামীম ওসমানের হুঁশিয়ারি এবং তার অনুসারি নেতাকর্মীদের ঝাঁঝাঁলো বক্তব্যে ভীত নন নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার। বরং তিনি তার অবস্থানেই অনড় রয়েছেন। একইসাথে স্পষ্ট করেই জানিয়ে দিয়েছেন, ‘যে যত বড় প্রভাবশালীই হোক, কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।’ ইসদাইর বাংলা ভবনে সাংসদ শামীম ওসমানের জরুরী কর্মী সভায়সাংসদ এসপিকে ইংগীত করে যেসব বক্তব্য রেখেছিলেন তাতে এসপি ভরকে গেছেন (?) এমনটাই ভেবেছিলেন অনেকে। কিন্তু পুলিশ সুপার তার অবস্থানে পূর্বের মতই অনড়রয়েছেন। এমনটাই ইংগীত পাওয়া গেছে এসপি হারুন অর রশীদের করা এক মন্ত্যবে। একটি গণমাধ্যমে পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ সাংসদ শামীম ওসমানের সভার পরদেওয়া এক মন্তব্যে বলেছেন, আমাদের পুলিশের চাকরিটা এমন যে, সবাইকে খুশি করা সম্ভব হয় না। সন্ত্রাস, মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চললে কেউ না কেউ এর শিকার হয়।আর তখনই এক পক্ষ অখুশি হবে, এটাই স্বাভাবিক। আমাদের চলমান অভিযান অব্যাহত থাকবে। এদিকে সাংসদ শামীম ওসমানের জরুরী সভাতে এসপি হারুন অররশীদকে ‘ঘুষখোর’ অখ্যায়িত করে তার প্রত্যাহার চেয়ে স্লোগান দিয়েছিলো সাংসদের অনুসারিরা। তবে, সেসব স্লোগানকে মোটেও পাত্তা দিচ্ছেন না জেলা পুলিশ সুপার।তিনি জানিয়েছেন, এমন কিছু হয়েছিলো কিনা আমার জানা নেই। তাছাড়া স্লোগানতো কত কিছুতেই হতে পারে। এ ব্যাপারটি জানা নেই। এদিকে নারায়ণগঞ্জের সচেতন মহলমনে করছেন, পুলিশ প্রশাসন যদি সদিচ্ছা পোষণ করেন তাহলে সন্ত্রাস, মাদক, চাঁদাবাজ নির্মূল কোনো ব্যাপারই না। যার জ্বলজ্যান্ত উদাহরণ হতে পারে নারায়ণগঞ্জের পুলিশসুপার হারুন অর রশীদ। তারা মনে করেন, তিনি যেভাবে একের পর এক অভিযান অব্যাহত রেখেছেন, সেভাবে যদি চালিয়ে যেতে পারেন এই নারায়ণগঞ্জ সত্যিকার অর্থেশান্তির শহর হয়ে উঠবে। এদিকে গণমাধ্যমে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদরে চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বলেছেন, ‘আমরা মনে করি- দলের হাই কমান্ড মাদক, জঙ্গি ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সে থাকার জন্য বলছে। প্রশাসনও সেই ভাবে কাজ করছে। এখন এটার মধ্যে দলীয় কিছু লোকজন পড়েগেছে। এজন্যে প্রশাসনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে বক্তৃতা করা আমরা সমর্থন করি না। আমাদের এখানে বলার কিছু নেই। কেন্দ্রীয় কমিটি দেখবে এতে দলের ও সরকারেরভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে কী-না? তারা এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিবে।’ অপরদিকে নগরবাসীর মতে, পুলিশ সুপার এখানে যোগদান করার পর তার কিছু উদ্যোগ দৃশ্যমান হয়েছে।এরমধ্যে হকারমুক্ত ফুটপাত, যনজট নিরসনে ভূমিকা, অবৈধ স্ট্যান্ড উচ্ছেদ ইত্যাদি। এছাড়াও বেশ কিছু প্রশংসনীয় অভিযানও তিনি চালিয়েছেন। যা নিঃসন্দেহে প্রশংসারদাবি রাখে। তবে, অভিযানের পরিধি আরও বাড়ানোর দাবি অনেকেরই। তারা মনে করেন, এখনকার অভিযানটি একমুখী রয়েছে। এই অভিযানে এক পক্ষের অসৎব্যক্তিরই পাকড়াও হচ্ছে। ফলে অপর পক্ষের অসৎ ব্যক্তিদের দিকেও নজর দেওয়া জরুরী। কেননা, যে পক্ষ এখন পুলিশ সুপারের বিরুদ্ধে উঠে পড়ে লেগেছে সে পক্ষেশতকরা ৮০ ভাগ খারপ লোক থাকলেও ২০ ভাগ খারাপ লোক কিন্তু অপর পক্ষের মধ্যেও রয়েছে। ফলে তাদের দিকেও নজর দেওয়া উচিৎ। সর্বপোরি নারায়ণগঞ্জকে শান্তিরশহর প্রতিষ্ঠার জন্য এসপি হারুনের মতো তেজদীপ্ত অফিসারই প্রয়োজন বলে মনে করেন অনেকে।

সেই পলাশের ৭০লাখ টাকা গেল কোথায়?

  ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট ‘ময়ূরপঙ্খী’ ছিনতাই চেষ্টা মামলার তদন্তে এবার মিলেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। এ ঘটনায় নিহত নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও…

Read More

দেড় মাসেও সরেনি টানবাজারের ক্যামিকেল গোডাউন

  ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট চকবাজারে কেমিক্যাল কারখানা থেকে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের পর নারায়ণগঞ্জ শহরের টানবাজারের কেমিক্যাল গোডাউন অপসারণে ১০দিনের নির্দেশনা দিয়েছিল জেলা…

Read More

চাঙ্গা হচ্ছে না’গঞ্জ মহানগর যুবদল

  ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা হওয়ার পর পরই নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের গতি ফিরতে শুরু করেছে। দীর্ঘদিন ধরে ঝিমিয়ে থাকা…

Read More

শামীম ওসমানের ঘোষণার দিন গণনা শুরু

  ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট উত্তেজিত নেতাকর্মীদের আশ্বস্ত করেছেন নারায়ণগঞ্জের প্রভাবশালী এমপি শামীম ওসমান। তিনি নেতাকর্মীদের শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, খেলা…

Read More

নারায়ণগঞ্জে দিনভর শহরে অসহনীয় যানজট

  ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট গতকাল সোমবার ছিল শহরে অসনীয় যানজট। যানজট নিরসনে ট্রফিক পুলিশ হিমশিম খাচ্ছে। ট্রাফিক ও কমিউনিটি পুলিশ কেউ…

Read More

শিক্ষা সফর থেকে লাশ হয়ে বাড়ি ফিরলো বন্দরের স্কুল ছাত্রী সাদিয়া

  ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট বন্দর গার্লস স্কুলের অবহেলায় ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী সাদিয়া আলম যুঁথির মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত রোববার…

Read More