কোন্দলে পিছিয়ে যাচ্ছে না’গঞ্জ বিএনপি

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

কোন্দলেই পিছিয়ে যােেচ্ছ নারায়ণগঞ্জ বিএনপি। দলের ভেতরে নিজের অবস্থান শক্ত করতে বিরোধে জড়াচ্ছে বিএনপির বিভিন্ন স্তরের নেতারা। স্থানীয় নেতাদের পাশাপাশি কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে বিরোধে জড়াচ্ছে কোন কোন নেতা। এ নিয়ে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি অনেকটা অস্থিরতার মধ্য দিয়ে দিন পার করছে এমন অভিযোগ বিএনপির তৃনমূলের নেতাকর্মীদের। কর্মীদের অভিযোগ, আমরা দির্ঘদিন ধরে ক্ষমতার বাইরে থাকায় হামলা, মামলার শিকার হয়ে অনেকটা কাবু হয়ে পরেছি। এই মূর্তে আমাদের মধ্যে ঐক্যর প্রয়োজনীয়তা থাকলেও নেতারা বিএনপিকে ভয়ংকর বিপদের মুখে ঠেলে দিচ্ছে। নিজের বিরোধে কর্মীদের জড়িয়ে বিএনপিকে সাংগঠনিক ভাবে দূর্বল করে দিচ্ছে। তবে নেতারা বিরোধের রাজনীতি পরিহার না করলেও আগামীতে বিএনপির আন্দোলন কর্মসূচিতে কর্মীদের খুঁজে পাওয়া দুস্কর হয়ে যাবে বলে মনে করছে মাঠ পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। তবে রাজনৈতিক বিশ্লেষক মহলের মতে, বিএনপি দীর্ঘদিন ক্ষমতায় না থাকার কারণে হতাশা দেখা দিয়েছে। যে কারণে নেতারা একে অপরের সাথে বিরোধে জড়িয়ে যাচ্ছে। তবে নেতারা যদি ঐক্যবদ্ধ থাকতে ব্যর্থ হয় তা হলে পুরো দলকে এর দায় নিতে হবে। তথ্যমতে, নারায়ণগঞ্জ বিএনপির রাজনীতিতে বিরোধের শেষ কোথায়? এমন প্রশ্ন বিএনপির তৃনমূলের নেতাকর্মীদের। তবে এমন প্রশ্ন থাকলেও উত্তর দেয়ার যেন কেউ নেই। নারায়ণগঞ্জ বিএনপির বিভিন্ন স্তরের নেতা একে অপরের সাথে বিরোধে জড়িয়ে আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে পরিনত হয়েছে। রাজপথ কিংবা আদালত পাড়া কোথাও বিএনপির নেতাদের ঐক্য নেই। সব স্থানেই বিএনপিতে বিভক্তি দেখা দিয়েছে। আর এই বিভক্তির কারণে বিএনপির সক্রিয় কর্মীদের মধ্যে হতাশা এবং ক্ষোভ বিরাজ করছে। এদিকে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপিতে স্থান না পেয়ে বিএনপির মহাসচিব মীর্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ জেলা ও মহানগর বিএনপির সভাপতি-সাধারন সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুই নেতা। যে দু’জন মামলা দায়ের করেছেন তারা দু’জনই আইনজীবী নেতা শাখাওয়াত হোসেনের সমর্থক বলে জানাগেছে। বিএনপির মহাসচিবকে জড়িয়ে এই মামলা দায়েরের পর নারায়ণগঞ্জ বিএনপিতে নতুন করে উত্তাপ শুরু হয়েছে। আলোচনা-সমালোচনা চলছে স্থানীয় নেতাদের নিয়েও। তবে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাদের এই বিরোধ চলমান থাকায় বিএনপি দিনে দিনে সাংগঠনিক ভাবে দূর্বল হয়ে পরছে। পাশাপাশি বিএনপির রাজনীতিতে চেইন অব কমান্ড ভেঙ্গে পরেছে। কেউ কাউকে মানছে না। যে যার মতো করে বিএনপিকে নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছেন বলেও অভিযোগ তৃনমূলের। বিএনপির মাঠ পর্যায়ের নেতাকর্মীদের মতে, বিএনপির শীর্ষ নেতারা যদি বিরোধ মিটিয়ে এক মঞ্চে আসতে ব্যর্থ হয় তা হলে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির রাজনীতি মুখ থুবড়ে পরার আশঙ্কা রয়েছে। আগামীদিনের আন্দোলন সংগ্রামে নেতাদের পাশে থাকবে না কর্মীরা। অন্যদিকে, বিএনপির শীর্ষ নেতাদের বিরোধে হতাশা হয়ে পরেছে বিএনপির মাঠ পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। ইতোমধ্যে বিএনপির কর্মকান্ডে কর্মীদের উপস্থিথিতি কমতে শুরু করেছে। নারায়ণগঞ্জ বিএনপি বিদ্যমান এই বিরোধ অব্যাহত থাকলে আগামী দিনগুলোতে নারায়ণগঞ্জে বিএনপির জন্য রাজনীতি করা কঠিন হয়ে যাবে। নেতাদের পাশে কর্মীদের খুঁজে পাওয়া দুস্কার হয়ে পরবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বোদ্ধা মহল।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *