ওসমান পরিবারকে খুনি বললেন আইভী

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

ওসমান পরিবার একটি খুনি পরিবার উল্লেখ করে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যাকান্ড কে বা কারা সংগঠিত করেছে তা সারা বাংলাদেশের কারোর অজানা নয়। কার অদৃশ্য শক্তির ইঙ্গিতে এই হত্যাকান্ডের বিচার হচ্ছে না তা আমাদের সকলের জানার অধিকার আছে। পাশাপাশি চঞ্চল, আশিক সহ অন্যান্য হত্যাকান্ডের আমরা বিচার চাই। এই সবগুলো হত্যাকান্ড সংগঠিত হয়েছে ওসমান পরিবার দ্বারা। গতকাল বুধবার বিকেলে দেওভোগে শেখ রাসেল নগর পার্কে মেধাবী ছাত্র তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যাকান্ডের ষষ্ঠ বার্ষিকী স্মরণে আয়োজিত শিশু সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি বলেন, বাংলাদেশে অনেক চাঞ্চল্যকর হত্যাকান্ডের বিচার হলো, কয়েকটা বিচার ছাড়া। সাগর-রুনির ব্যাপার আমরা অনেকেই জানি, অনেক কিছু জড়িত। তনু হত্যার বিচার কেন হচ্ছে না তাও মানুষ বুঝতে পারে। কিন্তু ত্বকী হত্যাকান্ডের সাথে কারা জড়িত? ত্বকী হত্যাকান্ডের সাথে ওই পরিবার জড়িত যাদের বাংলাদেশের কেউ ছুতে পারবে না, ধরতে পারবে না। সিটি মেয়র বলেন, নারায়ণগঞ্জ বাংলাদেশের আরেকটা ভূখন্ড মনে হয় আমার। এখানে নির্বাচারে হত্যা, অত্যাচার, অবিচার করা হবে কিন্তু বলার কেউ নাই। আশিক হত্যার বিচার হলে, চঞ্চল হত্যা হতো না; চঞ্চল হত্যার বিচার হলে  মিঠু হত্যা হতো না; মিঠু হত্যার বিচার হলে হয়তো ব্যবসায়ী ভুলু হত্যা হতো না। আর শেষ পর্যন্ত আমাদের ছোট সন্তানকে হারাতো হলো, কেন? নারায়ণগঞ্জবাসীকে স্তব্দ করার জন্য, ভয় দেখানোর জন্য। যখন পুরো শহর অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার তখন ছোট একটা শিশুকে হত্যা করে তাদের পিতা-মাতা সহ সবাইকে জুজুর ভয় দেখিয়ে চুপ করার চেষ্টা করা হলো। চুপ তো হয়ই নি বরং ওই খুনিদের এখন মরণ ফাঁদ হয়ে দাঁড়িয়েছে। ত্বকী হত্যার বিচারের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী সহ রাষ্ট্রের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে মেয়র বলেন, খুনি যত বড় প্রভাবশালীই হোক না কেন তাদের বিচারের আওতায় আনা হোক। তিনি আরো বলেন, ত্বকী হত্যার বিচার না পেলে আমরা এ দাবি জানিয়ে যাবো। তদ্রুপভাবে ওই ঘাতক, খুনি পরিবারকে আমরা প্রত্যাখান করে যাবো। সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক ও নিহত ত্বকীর পিতা রফিউর রাব্বির সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক শওকত আরা হোসেন, বাংলাদেশ টেলিভিশনের পরিচালক জাহিদ মোস্তফা, চিত্রশিল্পী অশোক কর্মকার, সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের সদস্য সচিব কবি হালিম আজাদ।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *