অস্তিত্ব রক্ষাই বিএনপির চ্যালেঞ্জ!

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

দলের দু:সময়েও নেতায় নেতায় কোন্দলের কারণে নারায়ণগঞ্জে বিএনপির সাংগঠনিক অবস্থা দূর্বল হয়ে পড়েছে। বর্তমানে কোন রকম নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখাটাই চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়ে বিএনপির নেতাদের জন্য। একযুগ ধরে ক্ষমতায় বাহিরে থাকায় মামলায় জর্জরিত হয়ে অনেক নেতা বিএনপির রাজনীতিই ছেড়ে দিয়েছেন। আর যারা নারায়ণগঞ্জে বিএনপির রাজনীতিতে সক্রিয় রয়েছেন তাদের মধ্যে থাকা দ্বন্দ্বের কারণ ঘুরে দাঁড়ানোর এখন অসম্ভব হয়ে পড়েছে। তবে অতীতের বিভেদ ভুরে নতুন বছরে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যাশা করচেন নারাযনগঞ্জ বিএনপির নেতারা। নতুন বছরে নারায়ণগঞ্জ বিএনপিও ঐক্যবদ্ধভাবে ঘুরে দাড়াবে বলে জানিয়েছেন দলটির নেতারা। বিগত বছরের স্মৃতিচারণ করে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র সিনিয়র সহ সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, গত বছরটি বাংলাদেশের জন্য একটি কালো বছর হিসেবে চিহ্নিত থাকবে। সে বছরে মানুষ তাদের গনতান্ত্রীক মৌলিখ অধিকার ভোট দেওয়া থেকে বঞ্চিত হয়েছে এবং সম্পূর্ণ অগনতান্ত্রীক উপায়ে জোর জুলুমের সরকার প্রতিষ্ঠা করেছে। তাছাড়া বিগত বছরে সরকার তাদের গদি ধরে রাখার জন্য দেশের নিরিহ মানুষের বিরুদ্ধে অৎ¯্র মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করেছে। মানুষের ন্যায় বিচার পাওয়ার অধিকার হরণ করেছে। সরকারের নীল নকসার অংশ হিসেবে বিএনপি চেয়ারপার্সণ ও তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াও ন্যায় বিচার পাওয়া থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। এমনকি তাকে সুচিকিৎসাটুকু পর্যন্ত সরকার দিচ্ছে না। সারা দেশকেই সরকার একটা কারাগারে পরিনত করেছে। তবে আশাবাদী সাখাওয়াত নতুন বছরে ঘুরে দাড়ানোর প্রত্যয় জানিয়ে বলেন, মানুষ আশা নিয়েই বেঁচে থাকে। রাত যতো গভীর হয়, ভোর তত নিকটে চলে আসে। সরকারের নানা অনিয়ম আর দূর্ণীতির মাধ্যমে কলঙ্কিত একটি বছরের শেষে নতুন বছরে নব উদ্দমে এই অবৈধ সরকারের পতনের লক্ষ্যে দুর্বার আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পরবে বিএনপি এবং ঐখ্যবদ্ধ গনতান্ত্রীক আন্দোলনের মাধ্যমে গনতন্ত্রের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে দেশের মানুষের হারিয়ে যাওয়া গনতন্ত্র পুন:প্রতিষ্ঠা করা হবে। জানাগেছে, নারায়ণগঞ্জে বিএনপির রাজনীতিতে সাখাওয়াত হোসেন খান দলের ক্রান্তি সময়ে নেতাকর্মীদের পাশে থেকে রাজপথে সক্রিয় রয়েছেন। মাঠ পর্যায়ের নেতারা বলছেন, নারায়ণগঞ্জে বিএনপির শীর্ষ নেতারা যদি সাখাওয়াত হোসেন খানের মতই রাজনীতিতে সক্রিয় থাকতো তাহলে নারায়ণগঞ্জে ক্ষমতাসীনদের চেয়ে বেশি শক্তশালী থাকতো বিএনপির অবস্থান। আর এমনটি হয়নি বলেই আজ নারায়ণগঞ্জে বিএনপির অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *