মেয়রকে সেলিম ওসমানের অনুরোধ

 

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট

শহরের মর্গ্যান গালর্স স্কুলের বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ভবন উদ্বোধনকালে সাংসদ সেলিম ওসমান নারায়নগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়রের প্রতি স্কুলের পূর্বদিকে নির্মানাধীন মার্কেটের একটি ফ্লোর মর্গ্যান গালর্স স্কুলকে প্রদানের জন্য অণুরোধ জানিয়ে বলেন, প্রয়োজনে আমরা ব্যবসায়ীরা মিলে এই ফ্লোরটি তৈরীর খরচ বহন করব। শহরের সকলেই অবগত আছেন পেছনের যে জায়গাটিতে সিটি কর্পোরেশন থেকে অট্টালিকা নির্মাণ করা হচ্ছে। সেখানে মর্গ্যাণ গালর্স স্কুলের জায়গা ছিল। এ নিয়ে যখন স্কুলের কোমলমতি শিক্ষার্থীরা রাস্তায় নেমে আন্দোলন করতে চেয়েছিল তখন আমি স্কুলে এসে তাদের সাথে কথা বলে বুঝিয়েছি। তাদেরকে রাস্তা না নামার অনুরোধ জানিয়েছি। তারা আমার কথা শুনেছে। আমিও তাদেরকে নতুন একটি ভবন নির্মাণে আমার যথাসাধ্য সহযোগীতা করেছি। যে ভবনটি স্কুলের শিক্ষার্থীরাই বঙ্গমাতা ফজিলাতুনেচ্ছা মুজিব ভবন নামে নামকরনের দাবী রেখেছে আর আজকে সেটি উদ্বোধন হয়েছে। আমি সকল কাগজপত্র ঘেটে দেখেছি স্কুলটির পক্ষ থেকে কোন মামলা মোকদ্দমা করা হয়নি। তাই আমি সিটি কর্পোরেশনের কাছে সবিনয় অনুরোধ করছি পেছনে যে বহুতল ভবনটি নির্মাণ করা হচ্ছে সেখান থেকে যেন একটি ফ্লোর মগ্যার্ণ স্কুলের নামে বরাদ্দ দেওয়া হোক। ওই ফ্লোর থেকে যে আয় হবে সেই আয়ের অর্থ প্রতিষ্ঠানের তহবিলে জমা থাকবে এবং সেটি দিয়ে প্রতিষ্ঠানের মেধাবী, দরিদ্র, অসহায় শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ায় সহযোগীতা করা হবে। কেউ যদি বিদেশে লেখাপড়া করার সুযোগ পায় প্রয়োজনে প্রতিষ্ঠানটি ওই অর্থ থেকে তাকে সহযোগীতা করবে। আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের  বিভিন্ন স্থানে সরকারী সম্পত্তি মাত্র ১ টাকা মূল্যে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে দিয়েছেন সাধারণ জনগনের কল্যাণে ব্যবহার করার জন্য। নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মালিক নারায়ণগঞ্জের জনগন। এদিকে সাংসদ সেলিম ওসমান বক্তব্য দিতে উঠলে কয়েকজন ছাত্রী তাদের বক্তব্যে অভিযোগ করেন, স্কুলে উত্তর দিকের ভবন গুলিতে জেনারেটর চালানোর ফলে ছাত্রীদের লেখাপড়ার যেমন বিঘœ সৃষ্টি হচ্ছে তেমনই শব্দ দূষণসহ পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। তাছাড়া স্কুলের উত্তর দিক ঘেষে খোলা টয়লেটের দুর্গন্ধে ছাত্রীরা শ্রেনী কক্ষে বসতে পারে না এমন অভিযোগ করলে সাংসদ সেলিম ওসমান জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট বিভাগকে এ ব্যপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার অনুরোধ জানান।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *