নেতাদের কোন্দলে আ’লীগের কর্মীরা বিপাকে

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
দল ক্ষমতায় থাকলেও নারায়ণগঞ্জে আওয়ামীলীগের নেতাদের কোন্দলের কারণে কর্মীরাও বিরক্ত। নেতায় নেতায় কোন্দল, মনোনয়ন যুদ্ধ, উত্তর-দক্ষিণ মেরুর বিভাজনসহ না কারণে আওয়ামীলীগের সরকার ক্ষমতায় থাকলেও নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক ভাবে এখনো গতি ফিরে আসেনি। জেলা আওয়ামীলীগের পূর্নাঙ্গ এখন একাধিক ভাগে বিভক্ত। নেতাদের বিভাজনে দলের নেতাকর্মীরা বিচ্ছিন্ন ভাবে পালন করছে দলীয় কর্মসূচী। আর মহানগর আওয়ামীলীগের অধিকাংশ নেতাই সুবিধাবাদি ও কর্মবিহীন। তাই দলীয় কোন কর্মসূচী একক ভাবে পালন করতে বেশ বেগ পুহাতে হচ্ছে তাদের। তাছাড়া এই কমিটির নেতারাও দুই ভাগে বিভক্ত। এছাড়াও থানা ও ওয়ার্ড পর্যায়ের আওয়ামীলীগে ও সহযোগী সংগঠনগুলোর কমিটি যুগ পাড় হয়ে গেলেও পুনগঠন করা হচ্ছে না। আবার কোন কোন ইউনিটে কমিটি আছে তবে নেতার কোন অস্তিত্ব নেই। তাই সব মিলিয়ে সাধারণ নেতাকর্মীদের অভিযোগ, দল ক্ষমতায় থাকলেও নারায়ণগঞ্জে সাংগঠনিক ভাবে পিছিয়ে রয়েছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগ। অনুসন্ধানে জানাগেছে, কমিটিগুলো পুনগঠন না হওয়ায় এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে নেতা বনে গেছে অনেক বিতর্কীতরা। নজরদারী না থাকায় আওয়ামী লীগ ঘরাণার রাজনীতিতে ৯টি সহযোগী সংগঠন ছাড়া অন্যকোন সংগঠন নেই নামের পরে ‘লীগ ‘জুড়ে দেওয়া ভূঁইফোড় সংগঠন এখন নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন অলিগলিতে ছেয়ে ছেঁয়ে গেছে। তাই রাজনীতির মাঠের বাইরে রয়েছে দলের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতারা। যে কারনে দলের স্বাভাবিক গতি ফিরে আসছে না। তবে রাজনৈতিক বোদ্ধারা বলছে কমিটি থাকলে সুনিষ্ট একটি ব্যানারের মাধ্যমে দলীয় কর্মকান্ড পরিচালত হলে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সু সংগঠিত ভাবে সংগঠনের কর্মকান্ড পরিচালনা করতে সক্ষম হতো। এ জন্য কমিটি গঠনের কোন বিকল্প নেই। কর্মীদের মতে, জেলা কমিটি থাকলেওা জেলার অন্যান্য থানা, ইউনিয়ন এমনকী ওয়ার্ড পর্যায়ের কমিটিগুলোর মেয়াদ ফুরিয়ে গেছে অনেক বছর থরে। মেয়াদ উর্ত্তীণ কমিটি দিয়েই পরিচালিত হচ্ছে আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক কর্মকান্ড। দলের স্বাভাবিক গতি ফিরিয়ে আনতে আওয়ামী লীগকে নতুন করে সাজানোর দাবি মাঠ পর্যায়ের নেতাদের। এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের তৎপরতা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন দলের তৃনমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা। আর মহানগর আওয়ামীলীগের নেতারা নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছে। অনেকেই এখন আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বলে গেছে। একই সাথে নিজের মেয়াদ উর্ত্তীণ হওয়ার পথে হলেও এখনো পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডের একটিতেও কমিটি পুন:গঠন করতে পারেনি। অভিযোগ রয়েছে, যোগ্যতা না থাকলেও পদ-পদবী আকরে রেখেছেন মহানগর আওয়ামীলীগের অনেক নেতা। কেউ বা আবার রাজনীতির মাঠে না থাকলেও বিএনপির নেতাদের সাথে মিলে ব্যবসা করছেন।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *