হত্যার চেষ্টাকারী পারভেজ গ্রেফতার

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট গাবতলী পুলিশ লাইন শাখার সভাপতি সাইফুল ইসলাম সাইফুল ইসলাম শরীফকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা মামলার প্রধান আসামী পারভেজকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার সকালে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলাধীন গাবতলী নতুন বাজার ব্যাংক টাউন এলাকা থেকে ওই আসামীকে গ্রেফতার করে ফতুল্লা থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আসামী পারভেজ গাবতলী এলাকার মো: জহিরুলের ছেলে। এদিকে পারভেজের গ্রেফতারের সত্যতা স্বীকার করে ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আসলাম হোসেন বলেছেন, চলতি বছরের ২৪ এপ্রিল গাবতলীতে গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট নেতাকে হত্যার উদ্দেশ্যে মারধর করে কিছু সন্ত্রাসী। ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলার প্রধান আসামী পারভেজ। গতকাল মঙ্গলবার সকালে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আদালতে পাঠানো হবে। অন্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান এ কর্মকর্তা। মামলার বাদি শরীফ বলেন, আমি গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট গাবতলী পুলিশ লাইন শাখার সভাপতি। আমার সংগঠন গাবতলী এলাকার গার্মেন্টস শ্রমিকদের আইনসঙ্গত অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করে থাকে। গত ২৪ এপ্রিল আমার সংগঠনের উদ্যোগে রানা প্লাজা ট্র্যাজিডির ৬ষ্ঠ বছর ও সরকার ঘোষিত ন্যূনতম মজুরি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে শ্রমিক সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। এ কারণে স্থানীয় কতিপয় কিছু জুট সন্ত্রাসী আমার ক্ষুব্দ হয় এবং বিভিন্ন মাধ্যমে আমাকে হুমকি ধমকি ও ভয় ভীতি প্রদর্শন করে। ওই দিন রাত সোয়া ১১টায় আমার মোবাইলে কল দিয়ে সন্ত্রাসীরা আমাকে জানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। তিনি আরও বলেন, তাদের এ হুমকিতে আমি দায়িত্ব থেকে সরে না দাড়ানোর কারনে ওই রাতেই ঝুট সন্ত্রাসীরা আমার উপর হামলা চালিয়ে আমাকে হত্যার করার চেষ্টা করে। সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আমাকে বেশ কয়েকবার কোঁপ দেয়। কিন্তু আমি সরে যাওয়ায় তাদের অনেক কোঁপ আমার শরীরে লাগেনি। তাছাড়া সন্ত্রাসীরা লোহার রড দিয়েও আমাকে এলোপাথারি আঘাত করে। সন্ত্রাসীদের হামলার কারনে আমি মারাত্তক ভাবে আহত হই। কেউ ভাবতেই পারেনাই, আমি বেঁচে ফিরবো।’ তবুও আল্লাহ্’র অশেষ রহমত ও মানুষের দোয়ায় আমি বেঁচে যাই। সুবিচার প্রার্থণা করে শরীফ বলেন, আমি এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় ঝুট সন্ত্রাসী পারভেজ, ছোট সুমন, আলমগীর, কালাম, রুবেল, সাগর, রিপন ও আরিফসহ প্রায় ১৫ জনের একটি মামলা দায়ের করেছি। আজ মামলার প্রধান আসামীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। আমার তাদের (পুলিশ) প্রতি একটাই চাওয়া, আমি যেন সুবিচার পাই। সকল আসামীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিই আমার চাওয়া। আমি চাই, ওই সকল সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতার করে এমন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হোক যাতে আর কোন সাধারন মানুষকে আমার মত নির্মম হামলার শিকার হতে না হয়।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *