থানায় হাজির হয়ে হাফসা ইসলাম আমাকে অপহরণ করা হয়নি

রূপগঞ্জ প্রতিনিধি
গতকাল বুধবার সকাল ১০টায় রূপগঞ্জ থানা একাই হাজির হলেন পপি রানী দাস। যাকে অপহরণের অভিযোগে গত এপ্রিল মাসে মনির হোসেন নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছিল। পপি রানী দাস রূপগঞ্জের নিমেরটেক এলাকার ধীরেন চন্দ্র দাসের কন্যা। থানায় হাজির হয়ে পপি রানী দাস (১৯) জানান, আমাকে অপহরণ করা হয়নি। গত ২৩ এপ্রিল নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে ধর্ম পরিবর্তন করি। আমার বর্তমান নাম হাফসা ইসলাম। ধর্ম পরিবর্তনের পর একই দিন রূপগঞ্জ গঙ্গানগর এলাকার জহুর আলীর পুত্র মনির হোসেনকে বিয়ে করি। মনির হোসেন আমার স্বামী। অপহরণ করা হয়নি। এদিকে, হাফসা ইসলামের বক্তব্য শুনে তাৎক্ষনিক আদালতে প্রেরণ করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রুহুল আমিন। পরবর্তিতে আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ডের পর নিজ জিম্মায় হাফসা ইসলামকে জামিন দেয়।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *