সিদ্ধিরগঞ্জে মাল্টিপারপাসের ৫২ লাখ টাকা আত্মসাত করেছে তিন কর্মচারী

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
সিদ্ধিরগঞ্জে কর্মচারী কর্তৃক মালিকের ব্যবসার ৫২ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। নাসিকের এক নং ওয়ার্ডস্থ পাইনাদী পূর্বপাড়া এলাকায় আমানত বহুমুখী সমবায় সমিতির দুই কর্মচারী রিপন, লিটন ও মিলন ওরফে কবুতর মিলন এ অর্থ আত্মসাত করেছে বলে অভিযোগ জানিয়েছেন সমিতির মালিক রজ্জব আলী। এ ব্যাপারে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় সাধারণ ডায়েরীও করেছেন তিনি। পরে স্থানীয়ভাবে শালিসের সিদ্ধান্ত মোতাবেকও অর্থ ফেরত না দিয়ে মামলা সহ নানাভাবে হয়রানী করছে বলেও দাবি করেছেন রজ্জব আলী। আমানত বহুমুখী সমবায় সমিতির পরিচালক রজ্জব আলী জানান, আমি লেখাপড়া করিনি। ২০১৭ সালে সরল বিশ্বাসে পাইনাদী পূর্বপাড়া এলাকার মো. আলাউদ্দিনের ছেলে রিপন ও মিলন ওরফে কবুতর মিলনকে কর্মচারী হিসেবে নিয়োগ দেন তিনি। বিগত দুই বছর ধরে কর্মচারী ওই দুইজন না জানিয়ে নামে বেনামে বিভিন্ন জায়গায় ঋণ প্রদানের কথা বলে ৫২ লাখ ৮৭ হাজার ৫শ ৯২ টাকা হাতিয়ে নেয়। এসময় রিপন ও মিলন ওরফে কবুতর মিলন তার ভাই লিটনকেও ৫লাখ টাকা ঋন প্রদান করেন। টাকা আত্মসাতে ওই ৩ভাইকে সহযোগিতা করেন তাদের পিতা মোঃ আলাউদ্দিন ও তাদের আত্মীয় মোঃ নবী হোসেন। তাদের কাছ থেকে রজ্জব আলী ব্যবসার টাকা ফেরত চাওয়ায় তারা উল্টো আদালতে মিথ্যা মামলা দিয়ে নানাভাবে হয়রানি করছে। এ বিষয়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও কাউন্সিলরের কাছে জানালে শালিসের মাধ্যমে রজ্জব আলীকে ৩০ লাখ টাকা দেওয়ার জন্য রাজি হয়। শালিসে গৃহীত সিদ্ধান্ত মোতাবেক সময় অনুযায়ী গত বছরের অক্টোবরের ১১ তারিখের মধ্যে তারা আমাকে কোন টাকা পরিশোধ করেনি। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, রজ্জব আলীর বিরুদ্ধে চলতি বছরের ৩০ এপ্রিল দোকানের মালামাল আটকের বিষয়ে একটি শালিশে মোস্তফা নামে ব্যক্তির উপর আক্রমণের অভিযোগে আরমান মিজি বাদী হয়ে আদালতে মামলা করেন (পিটিশন মামলা নং ৮৬/১৯)। এর আগে গত বছরের ৩০ আগষ্ট রজ্জব আলী ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীক কাজের কর্মচারী রিপনকে মারধরের অভিযোগ রিপনের (রজ্জব আলীর ব্যবসার কর্মচারী) বাবা আলাউদ্দিন মিয়া বাদী হয়ে আদালতে মামলা করেন (সিআর মামলা নং ৮৯/১৯)।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *