থাইল্যান্ডের আদলে না’গঞ্জে চালু হচ্ছে ওয়াটার বাস

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
বদলে যাচ্ছে বৃত্তাকার নৌপথ। থাইল্যান্ডের আদলে হচ্ছে সদরঘাট-নারায়ণগঞ্জ-টঙ্গী নৌপথের আধুনিক ও যাত্রীবান্ধব অভ্যন্তরীণ কাঠামো। পরিকল্পনাতে এবার যুক্ত করা হচ্ছে, টেকসই ও দ্রুতগতির ওয়াটার বাস। আকার হবে ছোট। আধুনিক ওয়াই-ফাই থাকবে। এ সার্ভিসের মূল লক্ষ্য হবে অল্প সময়ে যাত্রীদের নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়া।বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) বলছে, এবার বৃত্তাকার নৌপথ থাইল্যান্ডের আদলে নিরাপদ ও যাত্রীবান্ধব হচ্ছে। এজন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। প্রকল্পের মুখ্য-উদ্দেশ্য হচ্ছে সাধারণ মানুষকে সেবা দিতে সচেষ্ট রাখা বিআইডব্লিউটিসিকে।খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জনকল্যাণে বিভিন্ন সময়ে সরকারের নেওয়া বিশেষ প্রকল্প। কিছুদিন না যেতেই মুখ থুবড়ে পড়ে। সরকারের নেওয়া উদ্যোগের মধ্যে অন্যতম একটা প্রকল্প ছিল ঢাকার ওয়াটার বাস সার্ভিস। এ সার্ভিস শুরুর পর থেকে নানা অব্যবস্থাপনা, সঠিক পরিকল্পনা ও রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। এবার নৌপথে যাত্রা শুরুর পর যাতে ব্যর্থ না হতে হয়, সেজন্য সতর্ক থাকবে বিআইডব্লিউটিসি।জানতে চাইলে বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান প্রণয় কান্তি বিশ্বাস বলেন, বৃত্তাকার নৌপথের আয়তন কম। কিন্তু জনসংখ্যা বেশি। এ কারণেই আমরা থাইল্যান্ডের আদলে এবার এ সার্ভিসকে ঢেলে সাজাব। আগের ব্যর্থতা খতিয়ে দেখে আবারও ব্যস্ত এ শহরের মানুষের গন্তব্যে দ্রুত পৌঁছে দিতে সদরঘাট-নারায়ণগঞ্জ-টঙ্গী পর্যন্ত একটি রুটে বৃত্তাকার নৌপথকে সচল করতে নতুন করে পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *