ফের মীরুর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজীর অভিযোগ

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
বেশ কিছুদিন ধরেই পলাতক রয়েছেন ফতুল্লার কুখ্যাত সন্ত্রাসী ২১ মামলার আসামী মীর হোসেন মীরু ওরফে ল্যাংড়া মীরু। তার বিরুদ্ধে ৪টি খুনসহ একাধিক মাদক, ভূমিদস্যুতা, চাঁদাবাজী এবং এটেম-টু-মার্ডারের বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে।একটি সূত্রে জানা গেছে, গ্রেফতার আতঙ্কে কিছুদিন পলাতক রইলেও বর্তমানে আবারো স্বরুপে এলাকায় ফেরার চেষ্টা চলাচ্ছে সন্ত্রাসী মীরু। এর পেছনে একটি ব্যপক উদ্দেশ্য রয়েছে তার। সূত্রটি জানায়, প্রতিবছর মীরু তার নিজের নাম করে এলাকায় কিছু দুস্থদের ঈদ সামগ্রী বিতরণ করে থাকে। কিন্তু এই ঈদ সামগ্রী বিতরণের নামে মীরু ও তার বাহিনীর সদস্যরা স্থানীয় ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে বড় ধরনের চাঁদাবাজী করে থাকে। এই চাঁদাবাজীর টাকা থেকে সামান্ন কিছু টাকা ব্যায়ের মাধ্যমে অসহায়দের ঈদ সামগ্রী বিতরণ করলেও বড় অংশই আত্মসাৎ করে মীরু বাহিনী। জানা গেছে, প্রতিবছর রমজানে কয়েক লাখ টাকা চাঁদা উত্তোলন করে মীরু। এবারও সেই বাসনায় মেতেছে এই সন্ত্রাসী। তাইতো এতোদিন গা ঢাকা দিলেও আবারও এলাকায় নিজেকে স্বরুপে ফেরাতে নানা কৌশল চালাচ্ছে সন্ত্রাসী মীরু।সূত্র জানায়, চলতি বছরের গত ৩০ মার্চ ফতুল্লা থানায় দায়েরকৃত চাঁদাবাজী মামলায় এখনও গ্রেফতার হয়নি পুলিশের ১০ নম্বর তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী মীর হোসেন মীরু ওরফে ল্যাংড়া মীরু। গ্রেফতার হয়নি মামলার অপর আসামী মীরু বাহিনীর অন্যতম সদস্য এবং তার ভাগিনা কিলার শাকিল, শ্যালক আরিফ, মুরাদ ও জাকির সহ ঘটনায় জড়িত অন্যান্য সন্ত্রাসীরা। এর মধ্যে কেউ কেউ পলাতক থাকলেও অনেকেই ঘুড়ে বেড়াচ্ছেন প্রকাশ্যে। শুধু তাই নয়, মীরুর সন্ত্রাসীরা তাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা সমূহের বাদীদের মামলা তুলে নিতে হুমকি দিচ্ছে প্রতিনিয়তই। এমনটা জানিয়েছেন ভূক্তভুগিরা।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *