দাপুটে শামীম ওসমান পরাজিত আইভী!

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
নারায়ণগঞ্জের রাজনীতিতে সাংসদ শামীম ওসমান ও মেয়র আইভীর দ্বন্দ অনেক পুরানো। যত দিন যায় এই দ্বন্দের মাত্রা ততই নতুন রঙ পায়। এবার বন্দর উপজেলা নির্বাচন নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নে দুইজনের মাঝে অলিখিত প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েছেন সাংসদ শামীম ওসমান আর নিজ পছন্দের প্রার্থীকে দলীয় প্রতীক এনে দিতে ব্যর্থ আইভী। আর আইভীর এই পরাজয়ের কারন হিসেবে উঠে এসেছে আবু সুফিয়ানের মতো অযোগ্য এক নেতাকে দিয়ে লড়াইয়ের মাঠে নামাকে। ল্যাড়া ঘোড়ায় বাজি ধরার কারনেই আইভীর এই পরাজয় বলে মনে করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। সূত্রে প্রকাশ, নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগের বনেদী দুই পরিবারের উত্তরাধীকারী ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমান ও নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভীর সাথে বন্দর উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন নিয়ে একটি অলিখিত প্রতিযোগিতা চলছিলো। সাংসদ শামীম ওসমানের পছন্দের প্রার্থী ছিলেন বন্দরের সর্বজন গ্রহনযোগ্য থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ রশিদ। প্রবীণ এই রাজনীতিবীদের পক্ষে ছিলো বন্দরের প্রায় পুরো আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠন। তাছাড়া দীর্ঘদিন যাবত আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থাকার কারনে এমএ রশিদের একটি নিজস্ব শক্ত অবস্থান তৈরী হয়েছিলো বন্দরে। তার সাথে ওসমান ভ্রাতৃদ্বয়ের সমর্থণ যোগ হওয়ায় নির্বাচনী মনোনয়ন দৌড়ে অপ্রতিদ্বন্দি হয়ে উঠেন তিনি। অপরদিকে, বন্দর উপজেলার চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন পেতে জোর প্রচেষ্টা চালিয়ে গেছেন জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাসিক ঠিকাদার আবু সুফিয়ান। মূলত নাসিক মেয়র আইভীর ঘনিষ্টজন পরিচয়ে নারায়ণগঞ্জে প্রতিষ্ঠিত সুফিয়ানের অতীত জীবন সম্পর্কে বন্দরবাসী অবহিত থাকায় বন্দরে কোন গ্রহনযোগ্যতাই তৈরী করতে পারেননি সুফিয়ান। তাছাড়া সামান্য চা দোকানী থেকে নারায়ণগঞ্জের প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী বনে যাওয়া সুফিয়ানের সাথে মেয়র আইভীর ঘনিষ্টতার কারন নিয়েও রয়েছে নানা গুঞ্জণ। আর এসব কারনে এমএ রশিদের মতো শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বির কাছে খড়কুটোর মতো উড়ে গেছেন আবু সুয়িান। এদিকে বরাবরের মতো নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগে শামীম ওসমানের বিরোধীতা করার প্রয়াসে বন্দর উপজেলা নির্বাচনে সুফানকে দিয়ে বাজির রেসে নামেন মেয়র আইভী। কিন্তু শামীম ওসমানের প্রার্থী এমএ রশিদের কাছে আইভীর প্রার্থী আবু সুফিয়ান ল্যাড়া ঘোড়া প্রমাণিত হওয়ায় এ যাত্রায় হার মানতে হয় মেয়রকে।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *