সাত বছর পর ইয়ার্ন মার্চেন্টে নির্বাচনী হাওয়া

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
সাত বছর পরে প্রাচ্যের ডান্ডিখ্যাত নারায়ণগঞ্জের টানবাজারে সুতা ব্যবসায়ীদের মধ্যে বইছে নির্বাচনী হাওয়া। দীর্ঘ ৭ বছর পরে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে দুটি প্যানেল থেকে ৩৬ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এর আগে সর্বশেষ ২০১২ সালে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে দুটি প্যানেলের প্রার্থীরা নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন। মাঝখানে দুই বার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছিল পুরো প্যানেলের ১৮ জন প্রার্থী। জানা গেছে, ২০১২ সালের ২৭ ফেব্রুয়ারী বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্টস এসোসিয়েশনের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন সম্পন্ন হয়। নির্বাচনে সাধারন গ্রুপে ১২ জন ও এসোসিয়েট গ্রুপ ৬ জন নির্বাচিত হন। এই ১৮ জন পরিচালকের মধ্য থেকে সভাপতি ও দুইজন সভাপতি নির্বাচিত হন। সাধারণ গ্রুপে এম সোলায়মানের প্যানেল থেকে ওই সময় ৮ জন ও বর্তমান সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমের প্যানেল থেকে ৪ জন নির্বাচিত হলেও এসোসিয়েট গ্রুপের ৬ জন জাহাঙ্গীর আলমকে সমর্থন দেয়ায় সভাপতি পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন জাহাঙ্গীর আলম। এরপর ২০১৪ সালের ৩০ জানুয়ারী ১৮ টি পদের বিপরীতে লিটন সাহার নেতৃত্বে শুধুমাত্র ১৮ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। সাধারণ গ্রুপে মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ১২ জন হলেন লিটন সাহা, মোহাম্মদ মুসা, মজিবর রহমান, রামরতন সাহা, জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার, এম এ মান্নান, সুব্রত পোদ্দার, সিরাজুল ইসলাম, জিয়াউর রহমান জিয়া, সাইদুর রহমান মোল্লা, এম এ খালেক, আমিনউদ্দিন। এসোসিয়েট গ্রুপ মনোনয়নপত্র দাখিলকারী ৬ জন হলেন, মাহফুজুর রহমান খান, নেছারউদ্দিন কামাল, তাজিমুল ইসলাম, ননী গোপাল সাহা, মুকুল হোসেন মল্লিক, হেদায়েতুল ইসলাম। পরে নির্বাচিতদের ভোটে সভাপতি নির্বাচিত হন লিটন সাহা। ২০১৬ সালের ২৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় বাংলাদেশ ইয়ার্ণ মার্চেন্টস অ্যাসোসিয়েশন ২০১৬-১৮ অর্থবছরের পরিষদে সভাপতি পদে এম সোলায়মান, সিনিয়র সহ সভাপতি পদে হাজী আব্দুল মান্নান এবং সহ সভাপতি পদে মো. নিছারউদ্দিন কামাল নির্বাচিত হন। ওই নির্বাচনে নির্বাচিত হওয়া কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন, সরোজ কুমার সাহা, আব্দুল্লাহ আল হোসেন বাপ্পি, মিন্টু চন্দ্র সাহা, দেবদাস সাহা, মো. জিয়াউর রহমান জিয়া, মো. সিরাজুল ইসলাম, বিপ্লব কুমার সাহা, মো. মহিউদ্দিন তুরান, হাবিব ইব্রাহিম বাবুল, কৃষ্ণ কমল সাহা, এম. তাজিমুল ইসলাম, এস.এম হেদায়েতুল আলীম, মো. জামান মিয়া, উত্তম কুমার সাহা ও মো. কামরুল হাসান। এদিকে ২০১৮ সালের ৮ নভেম্বর বাংলাদেশ ইয়ার্ণ মার্চেন্টস্ এসোসিয়েশনের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও ভোটার তালিকা সংশোধনের জন্য তফসিল পেছানো হয়। পরে চলতি বছরের মার্চে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও নির্বাচনের তফসিল স্থগিত করা হয়। ২৭ ফেব্রুয়ারী নির্বাচন বোর্ডের সদস্য সচিব হামিদুল হক স্বাক্ষরিত এক নির্বাচন সংক্রান্ত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ ইয়ার্ণ মার্চেন্টস্ এসোসিয়েশনের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন ২০১৯-২০২১ এর প্রাথমিক ভোটার তালিকার উপর আপত্তি দাখিলের জন্য নির্ধারিত সময়ে চূড়ান্ত ভোটার তালিকা থেকে নাম বাদ দেয়ার জন্য পক্ষে বিপক্ষে অসংখ্য আপত্তি পড়ায় সদস্যগণ কর্তৃক ভোটার হবার জন্য প্রদত্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের কিয়দাংশ সূক্ষভাবে যাচাই বাছাই করে ব্যপক অনিয়মের আলামত পাওয়া যায়। নিয়মতান্ত্রিক ও সুষ্ঠু একটি নির্বাচন পরিচালনা করার স্বার্থে প্রয়োজনীয় কার্য সম্পাদনের লক্ষ্যে দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন ২০১৯-২০২১ বর্তমান তফসিল অনুযায়ী সকল কার্যক্রম স্থগিত করা হলো। এদিকে বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্টস্ এসোসিয়েশনের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন ২০১৯- ২০২১ইং এর মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন মঙ্গলবার সুতা ব্যবসায়ীদের ২টি প্যানেলের মোট ৩৬জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র নির্বাচন পরিচালনা বোর্ডের নিকট জমা দেন। এর মধ্যে জেনারেল গ্রুপের ২৪ জন এবং এসোসিয়েট গ্রুপের ১২জন প্রার্থী মনোনয়ন পত্র জমা প্রদান করেন। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিনে আলহাজ এম. সোলায়মানের নেতৃত্বাধীন প্যানেলের ১৮ জন প্রার্থীরা হচ্ছেন- আলহাজ এম সোলায়মান, আব্দুল মান্নান মিঞা, আব্দুল্লাহ্ আল হোসেন বাপ্পি, মোঃ হুমায়ুন কবীর, আলহাজ মোঃ সাইদুর রহমান মোল্লা, দেবদাস সাহা, মোঃ আজহার হোসেন, মোঃ হাবিব ইব্রাহীম, মিন্টু চন্দ্র সাহা, মোঃ সাইদুর রহমান, মোঃ মহিউদ্দিন তুরান, মোঃ আব্দুল কাদির (সাধারণ গ্রুপ)। মোঃ মাহফুজুর রহমান খান মাহফুজ, মোঃ মকবুল হোসেন, মোঃ কামরুল হাসান, মোঃ খায়রুল কবীর, অসীম কুমার সাহা, মোঃ ফয়সাল আহাম্মদ দোলন (এসোসিয়েট গ্রুপ)। অপরদিকে লিটন সাহার নেতৃত্বাধীন প্যানেলের ১৮ জন হলেন লিটন সাহা, অশোক মহেশ^রী, আলহাজ মোঃ মোজাম্মেল হক, মোঃ সেলিম রেজা, মোঃ মজিবুর রহমান, আলহাজ মোঃ আমিন উদ্দিন, মোঃ সিরাজুল হক হাওলাদার, মোঃ আকবর হোসেন, সঞ্জীত রায়, তাজুল ইসলাম, মোস্তফা এমরানুল হক মুন্না, জয় কুমার সাহা (সাধারণ গ্রুপ)। এবং মোহাম্মদ মুসা, মোঃ মুকুল হোসেন মল্লিক, মজিবর রহমান, মাওলানা নাজমুল হুদা বিন মাহিদ, মোঃ মেহেদী হাসান, আফসার আহমেদ (এসোসিয়েট গ্রুপ)। প্রার্থীগণ তাদের মনোনয়ন পত্র বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্টস্ এসোসিয়েশনের নির্বাচন পরিচালনা বোর্ডের সভাপতি মঞ্জুরুল হকের নিকট জমা দেন। এ সময় নির্বাচন পরিচালনা বোডের্র অপর দুই সদস্য আলহাজ রাশেদ সারোয়ার এবং ফারুক বিন ইউসুফ পাপ্পু উপস্থিত ছিলেন। আগামী ২২ জুন বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্টস্ এসোসিয়েশনের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *