মাথা ন্যাড়া করেও শেষ রক্ষা হল না সেই ধর্ষকের

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
চট্টগ্রাম থেকে প্রেমিকাকে নারায়ণগঞ্জে ডেকে এনে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত আসামি রবিউল ইসলাম সানিকে (২৪) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোড থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সানি মুন্সিগঞ্জ ফুলতলা এলাকার নুরুল হক ব্যাপারীর ছেলে। বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর মডেল থানার ওসি মো. কামরুল ইসলাম জানান, মাথা ন্যাড়া করে কৌশলে পালাতে চেয়েছিল আসামি। গোপন সংবাদ ও তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে আমরা তার অবস্থান নিশ্চিত করে লিংক রোডের উপর থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি আরো জানান,আসামীর ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষা ও আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দী সম্পূর্ণ করা হয়েছে। এর আগে গত সোমবার দুপুরে তিনজনের নাম উল্লেখ করে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করে ধর্ষনের শিকার তরুণী। তরুণীর অভিযোগ ধর্ষণের পর এসআই সাইফুল ধর্ষককে গ্রেপ্তার না করে উল্টো তাকে শ্যামলী পরিবহনের একটি গাড়িতে তুলে দিতে চেয়েছিলো। এছাড়া ধর্ষকের মা থানায় আসলেও তাকে পালিয়ে যেতে সহায়তা করেছেন এসআই সাইফুল। মামলা সূত্রে জানা যায়, ৬ মাস আগে চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে রবিউল ইসলাম সানির সাথে পরিচয় হয় ওই তরুণী। তখন থেকেই তাদের সম্পর্ক ছিল। ঈদের ছুটিতে গত ৭ জুন সানির দাওয়াতে চট্টগ্রামের হাটহাজারী থেকে নারায়ণগঞ্জে আসে ওই তরুণী। পরে শহরের পরে আরেকটি বাসে করে চট্টগ্রামে পাঠানোর চেষ্টা করলে তাদের বাকবিতন্ডায় লোকজন জড়ো হলে সানি পালিয়ে যায়। মামলায় ওই ধর্ষণের পেছনে সানির মা ও এক ভাই জড়িত দাবি করা হয়।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *