পুনর্বহাল হলেন ডিসি রাব্বি মিঞা

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক হিসেবে রাব্বী মিয়া গত তিন বছর ধরে দায়িত্ব পালন করেছেন। যদিও কিছু কিছু ক্ষেত্রে তার ব্যর্থতাও রয়েছে। সর্বোপরি অন্যান্য জেলা প্রশাসকের তুলনায় তার ভূমিকা ছিল উল্লেখযোগ্য। সম্প্রতি তাঁর বদলীর আদেশ হলেও গতকাল রোববার সেটা বাতিল করা হয়। বর্তমানে দায়িত্বরত জেলাতেই তাদের একই পদে পুনর্বহাল করে পৃথক আদেশ জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। গতকাল রোববার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মুহম্মদ শাহীন ইমরানের স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে এই আদেশ দেওয়া হয়। জানা গেছে, ১১ জুন উপসচিব থেকে যুগ্মসচিব পদে পদোন্নতি পাওয়া এই সরকারি কর্মকর্তাকে তাদের আগের পদ ও কর্মস্থলে ‘ইনসিটু পদায়ন’ (আগের পদে পুনর্বহাল) করেছে সরকার। এর ফলে এই আমলা নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক (ডিসি) হিসেবে কর্মরত ছিলেন এখন আবারো এখানেই দায়িত্ব পালন করবেন। তবে এ আদেশ বিকেলে হলেও সেই সূত্র ধরে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়ার জন্য ১৬ জুন রোববার সকাল থেকে ধারণা ছিল এদিন জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির শেষ মাসিক সভা। ফলে এই শেষ মাসিক সভায় এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। সেই সাথে আবার খুশিরও আমেজ বিরাজ করছিল। একদিকে জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া বদলী হয়ে নারায়ণগঞ্জ থেকে চলে যাচ্ছেন অন্যদিকে তিনি আবার পদোন্নতি পেয়ে আরও উপরের দিকে উঠতে যাচ্ছেন। ফলে আবেগঘন পরিবেশের পাশাপাশি খুশিরও আমেজ ছিল ওই মাসিক সভায়। এতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে আবেঘ জড়িত কন্ঠে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া বলেন, নারায়ণগঞ্জের সকল পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিদের থেকে শুরু করে সকলের সাথেই আমার ভাল সম্পর্ক ছিল। আমি এখানে তিন বছর নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি, অবশ্যই এটা একটা বড় পাওয়া। আমাকে সকলেই সহযোগিতা করেছেন। আমি দায়িত্ব পালন করাকালিন সময়ে হকার ইস্যু ছাড়া অন্য কোন বড় ঘটনা ঘটেনি। আমি সকল জায়গায় চ্যালেঞ্জের সাথে দায়িত্ব পালন করে সফল হয়েছি। এজন্য আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি। জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা বক্তব্য রাখতে গিয়ে জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়াকে হিরো আখ্যা দিয়ে বলেন, আপনি ছিলেন আমাদের অনুপ্রেরণা, আমাদের আদর্শ। আপনি জেলখানায় রিজিলিয়ান্স চালু করে অনন্য নজির স্বাপন করেছেন। আপনার বক্তব্য শুনে জেলখানার কয়েদিরা ভাল পথে ফিরে আসে। আপনার গতিশীলতায় আমরা স্পন্দিত হয়েছি। আপনাকে ভুল যাবে না। আপনার সকল কর্মকান্ড আমাদের জন্য স্মরণীয় হয়ে থাকবে। জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়াকে দেশপ্রেমে সক্রিয় অংশগ্রহণ করে সামনের দিকে যাওয়ার আহবান জানানোর পাশাপাশি ও পরিবার পরিজন নিয়ে সুখী থাকার প্রত্যাশা করেছেন তারা। এসময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক মোহাম্মদ আলতাফ হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট যুথিকা সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) রেহেনা আকতার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ সেলিম রেজা, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আজাদ বিশ্বাস, আড়াইহাজার উপজেলা চেয়ারম্যান মুজাহিদুর রহমান হেলো সরকার, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক, বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান পিন্টু বেপারী, রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মমতাজ বেগম ও সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী অফিসার অঞ্জন কুমার সরকার সহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা। প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের ২০ আগস্ট রাব্বী মিয়াকে নারাযণগঞ্জের জেলা প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *