মহানগর আ’লীগের কাপন দেখে ভীত জেলা!

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
দল ক্ষমতায় থাকলেও দীর্ঘদিন ঝিমিয়ে থাকা মহানগর আওয়ামীলীগ নিজেদের অবস্থান জানান দিয়েছেন। তকাল শনিবার আওয়ামীলীগের ৭০ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে শহরে বর্ণাঢ্য র‌্যালী করেছে মহানগর আওয়ামীলীগ। ২০১৫ সালের ২৫ নভেম্বর মহানগর আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষনার পর প্রথমবারের মত নারায়ণগঞ্জের রাজপথে বিশাল আয়োজনের মধ্যেদিয়ে রাজপথে কোন কর্মসূচী পালন করেছে। যদিও মহানগর আওয়ামীলীগের র‌্যালীতে কমিটিতে থাকা অনেক শীর্ষ নেতাই ছিলেন অনুপস্থিত। এতেকরে অনেকটা স্পষ্ট যে, এখনো মহানগর আওয়ামীলীগে নেতায় নেতায় দ্বন্দ্ব রয়েছে। ২০১৩ সালের ১১ সেপ্টেম্বরে মহানগর আওয়ামীলীগের তিন মাস মেয়াদে আংশিক কমিটি ঘোষনা করা হলেও ২০১৫ সালের ২৫ নভেম্বরে তা পূর্ণাঙ্গ হয়। এরপর থেকেই বিভিন্ন অনুষ্ঠানে কড়া কড়া বক্তব্য দিলেও রাজপথে তাক্ লাগানো কোন কর্মসূচী পালন করতে পারেনি মহানগর আওয়ামীলীগ। যদিও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় প্রতীক পেতে মহানগর আওয়ামীলীরে অনেক নেতাই কেন্দ্রের নজরে আসতে বিশাল বিশাল শো-ডাউন করেছিল। তবে দলীয় স্বার্থে সেই নেতারা রাজপথে শো-ডাউন করে নিজেদের অবস্থানের জানান দিতে ব্যর্থ হয়েছেন। অপরদিকে, জেলা আওয়ামীলীগেও দ্বন্দ্বের কারণে একাধিক ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। ২০১৬ সালের ৯ অক্টোবর আব্দুল হাইকে সভাপতি, সেলিনা হায়াত আইভীকে সহ-সভাপতি ও আবু হাসনাত শহিদ বাদলকে সাধারণ সম্পাদক করে জেলা আওয়ামীলীগের আংশিক কমিটি পূর্ণাঙ্গ রূপ পেয়েছে ২০১৭ সালের ২৫ নভেম্বর। কমিটি ঘোষনার পর বেশ কয়েকজন নেতা পৃথক ভাবে শো-ডাউন করেছিল। এরপর থেকেই রাজপথে লাপাত্তা জেলা আওয়ামীলীগের অধিকাংশ নেতাই। দলীয় কর্মসূচী পালনে রাজপথে না থেকে দলীয় কার্যালয়ে ফটোসেশনের মধ্যদিয়ে নিজেদের কর্মসূচী পালন করেছেন বলে অভিযোগ মাঠ পর্যায়ের নেতাদের। এমনকি নির্বাচনের আগে দলীয় মনোনয়ন পেতে জেলা আওয়ামীলীগের বেশ কয়েকজন নেতা রাজপথে তৎপর থাকলেও নির্বাচনে দলীয় বা জোটের প্রার্থীদের পক্ষে মাঠে নামতে দেখা যায়নি। এদিকে, দেড়িতে হলেও রাজপথে মহানগর আওয়ামীলীগ নিজেদের অবস্থানের জানান দিলেও জেলা আওয়ামীলীগ কি পারবে নিজেদের অবস্থানের জানান দিবে-এমন প্রশ্ন মাঠ পর্যায়ের নেতাকর্মীদের। জানাগেছে, গতকাল শনিবার আওয়ামীলীগের ৭০ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে মহানগর আওয়ামীলীগের উদ্যোগে বিশাল বর্ণাঢ্য র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিকেলে ২নং রেলগেইট আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের সামনে থেকে র‌্যালীটি শুরু করে শহরের চাষাঢ়া গোলচত্ত্বর হয়ে আবার কার্যালয়ের সামনে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালীটিকে ঘিরে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ছিল সাজ সাজ রব। সকাল থেকেই ওয়ার্ড পর্যায় থেকে শুরু করে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা প্রস্তুতি নিতে থাকেন। দুপুর আড়াইটার পর থেকেই বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের নেতৃত্বে খন্ড খন্ড মিছিল নিয়ে নেতাকর্মী সমর্থকরা ২নং রেলগেইট কার্যালয়ের সামনে জড়ো হতে থাকেন। এভাবে বিভিন্ন জায়গা থেকে নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণে কার্যালয় প্রাঙ্গন বিশাল জনসমাবেশে পরিণত হয়। অপরদিকে, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজপথে তেমন তৎপরতা নেই জেলা আওয়ামীলীগের। তবে জেলা আওয়ামীলীগের একাধিক নেতা দাবী করেছেন, রাজপথেও জেলা আওয়ামীলীগের শক্ত অবস্থান রয়েছে। যা অচিরেই জানান দিবে জেলা আওয়ামীলীগ।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *