মেসিদের বদ করে ব্রাজিল ফাইনালে

জোবায়দা হোসেন লাভলী
বাংলাদেশের সময় সকাল সাড়ে ৬টায় কোপা আমেরিকার প্রথম সেমিফাইনাল ব্রাজিল আর্জেন্টিনা ম্যাচ শুরু হয়। উত্তেজনার পারদ বাংলাদেশেও ছিল। বাংলাদেশের ফুটবল দর্শক তখনও বিছানা ছেড়ে উঠেননি। আলসেমিতে তখনও চোখে রাজ্যের ঘুম। যারা ব্রাজিল আর্জেন্টিনা দ্বৈরথ মিস করতে চাননি তারা ঠিকই চোখের ঘুম সরিয়ে টিভির পর্দার সামনে বসেছিলেন। ব্রাজিল ২-০ গোলে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা ফুটবল ফাইনালে উঠেছে। ব্রাজিল সমর্থকদেরই নয়, ব্রাজিল ফুটবলাররাও দারুন খুশি। ব্রাজিলের বেলে হোরিজোন্তের মিনেইরিও স্টেডিয়ামের এই মাঠেই ২০১৪ সালে বিশ্বকাপ ফুটবল সেমিফাইনালে জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে হেরেছিল ব্রাজিল। ইনজুরির কারনে সেই ম্যাচে নেইমার ছিলেন না। হলুদ কার্ড থাকায় ডিফেন্ডার থিয়েগো সিলভাও ছিলেন না। এই শক্তির মধ্যে কালকের খেলায় থিয়েগো খেলেছেন। নেইমার ছাড়া আর্জেন্টিনাকে হারাতে মোটেও বেগ পেতে হয়নি। তাহলে কি সেদিন থিয়েগো সিলভা থাকলে জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে হারতে হতো না। নাকি সেদিনের কোচ লুইপ স্কোলারি যেটা পারেননি পেরেছেন বর্তমান কোচ তিতে। কি তার যাদু ছিল যা পারেননি স্কোলারি। পেরেছেন তিতে। যে মাঠে স্কোলারি কলঙ্কের দাগ লাগিয়ে রেখে গিয়েছেন, সেটি মুছার চেষ্টা করেছেন তিতে। খেলার ১৯ মিনিটে জেসুস গোল করে ব্রাজিলকে এগিয়ে দিলেন ১-০। বাংলাদেশে ব্রাজিল সমর্থকরা বুঝলেন ঘুম থেকে উঠা বৃথা যায়নি। আনন্দ মনে অনেকেই টিভির ভলিউমটাও বাড়িয়েছিলেন। পুড়ছিলেন আর্জেন্টাইন সমর্থকরা। আস্থা রাখছিলেন মেসি কিছু একটা করবেন। কয়েক বার ব্রাজিলের পোষ্টে বল আঘাত করে ফিরে আসছিল যখন তখনও আশায় বুক বেঁধে বিছানায় বসে ছিলেন। আতœবিশ্বাস ছিল মেসির উপর। মেসি যাদুকরি ফুটবল খেলবেন। সেটপিস পেলে জাদু দেখাবেন। সেটপিস পেয়েছিলেন মেসি। কিন্তু ভাগ্য বিধাতা যেন মুখ ঘুরিয়ে রেখেছিলেন। ব্রাজিল উল্টো ৭০ মিনিটে আর্জেন্টিনার জালে দ্বিতীয় গোল করে বসল। ফিরমিনো গোল করে মেসিদের বুকে পেরেক ঠুকলেন ২-০। এবারের কোপা আমেরিকায় এখনো কোনো গোল হজম করেনি ব্রাজিল। এক যুগ পর কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠেছে ব্রাজিল ২০০৭ সালের পর আবার ফাইনালের মঞ্চে উঠল ব্রাজিল। এই টুর্নামেন্টের গত দুই আসরের রানার্সআপ আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসি সেমিফাইনালে হেরে দোষ দিয়েছেন রেফারীকে। খেলা পরিচালনায় খুঁত ধরেছেন। বার বার বাঁশী বাজিয়ে খেলাটাকে নষ্ট করেছেন বলে সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন মেসি। ১৩০ বছরের কোপা আমেরিকার ফুটবল লড়াইয়ে ইতিহাসে ৮ বার চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। আর্জেন্টিনা ১৫ বার চ্যাম্পিয়ন। আর্জেন্টিনা এখন তৃতীয় স্থানের জন্য লড়বে।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *