বাজেট ঘোষণার পূর্বে সকল পক্ষের সাথে আলোচনার প্রয়োজন ছিল

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
সিটি করপোরেশনের বাজেট ঘোষিত হতে যাওয়া বাজেট অনুষ্ঠান নিয়ে ‘সূক্ষ্ম রাজনীতি’ রয়েছে বলে মন্তব্য করছেন সাংসদ সেলিম ওসমান। একই সাথে তিনি বাজেট অনুষ্ঠানের তাকে অতিথি করা হবে সেখানে তিনি সম্মতি দেননি তাই আমন্ত্রণ পত্রে তার নাম দেখে তিনি বিস্মিত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন। এর কারণ হিসেবে তিনি ব্যাখ্যা করে বলেছেন, বাজেট অনুষ্ঠানে অতিথি হওয়ার দরকার আছে বলে মনে করিনি তাই সম্মতি দিইনি। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটার দিকে বন্দর উপজেলার চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যাদের দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে সিটি করপোরেশনের বাজেট প্রসঙ্গ উঠলে তিনি ওই কথা বলেন। উপজেলার ওই অনুষ্ঠানে সাংসদ সেলিম ওসমান জানান, বাজেট কেমন হবে, মানুষের চাওয়া কি, এসব নিয়ে সিটি এলাকায় দুজন এমপি আছেন তাদের সাথে, কাউন্সিলরদের সাথে, ব্যবসায়ীদের সাথে এবং সিটির বাসিন্দাদের সাথে বাজেট নিয়ে ‘প্রাক বাজেট’ আলোচনা করার দরকার ছিলো। কিন্তু সেটি করা হয়নি বলেই আমি নিশ্চিত হয়েছি। বাজেট সম্পর্কে তিনি বলতে গিয়ে বলেন, আমি নিশ্চিত হয়েছি বাজেট করার পূর্বে প্রাক বাজেট নিয়ে কাউন্সিলদের সাথে কোন আলোচনা হয়নি এমনকি কোনো ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ অথবা এলাকার মানুষ কেমন বাজেট চায় এ নিয়ে কোনো আলোচনা হয়নি। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন এলাকায় সদর-বন্দর ও ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ দু’জন সংসদ সদস্য সম্পৃক্ত রয়েছে তাদের সাথেও আলোচনা হয়নি। সেলিম ওসমান বলেন, ২০১৭ সালে সিটি করপোরেশনের বাজেট অনুষ্ঠানে বিকেএমইএ এর সভাপতি হিসেবে আমি স্বেচ্ছায় সেখানে গিয়েছিলাম। মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী আমাকে মঞ্চে তুলেছেন। এবারেও উনি আমাকে সম্মানের সাথে দাওয়াত দিয়েছেন। টেলিফোনে কথা বলেছেন, দাওয়াত দিয়েছেন আমি দাওয়াত গ্রহন করেছি। তিনি বলেন, আমি মেয়রকে প্রাক বাজেট আলোচনার অনুরোধ করেছিলাম। কিন্তু কার্ডে নাম দেখে আমি আশ্চার্য হয়েছি। বাজেট অনুষ্ঠানে অতিথি হওয়ার প্রয়োজন আছে বলে আমার মনে হয়না তাই আমি সম্মতি দিইনি। কিন্তু কেন যেন আমার কাছে মনে হয়েছে এখানে একটি ‘সূক্ষ্ম রাজনীতি’ রয়েছে। সেলিম ওসমান বলেন, বাজেট অনুষ্ঠান নিয়ে কোনো রাজনীতি কাম্য নয়। আমি আল্লাহ কাছে প্রার্থনা করি যাতে করে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের বাসিন্দাদের জন্য একটি সুন্দর বাজেট হয়, যেখানে সিটি করপোরেশনবাসীর কোনো দুর্ভোগ থাকবে না। আমি দোয়া করি আল্লাহ মেয়রের সহায় হোক।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *