আহ্বায়ক কমিটি দেওয়ার এখতিয়ার জেলা কমিটির নেই: কায়সার

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
সানারগাঁ আসনের আওয়ামী লীগের সাবেক সাংসদ আব্দুল্লাহ আল কায়সার বলেছেন, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটি একক সিদ্ধান্তে অনুমোদন দেওয়ার কোনো এখতিয়ার নেই জেলা কমিটির। আহবায়ক কমিটির তালিকা করে কেন্দ্রে প্রস্তাব পাঠাতে হবে। কেন্দ্রের অনুমতি পাওয়ার পর জেলা কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত করে কমিটি ঘোষনা করতে হবে। এ কমিটিতে কেন্দ্রের কোনো অনুমতি নেওয়া হয়নি। তাই কমিটির কোনো বৈধতা নেই। এই কমিটি সম্পূর্ণ অবৈধ। গতকাল শুক্রবার বিকেলে সোনারগাঁ উপজেলার মোগরাপাড়া চৌরাস্তায় আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের নব গঠিত আহবায়ক কমিটির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভায় এসব কথা বলেন। এ সময় শোক দিবসের আলোচনা সভাও অনুষ্ঠিত হয়। তিনি বলেন, মাঠের নেতাকর্মীরা প্রস্তুত আছে, আপনাদের অবস্থান আপনারা নিজেরা নষ্ট করবেন না। অন্যথায় সোনারগাঁয়ের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই তাদের ব্যবস্থা করবেন এটার দায়ভার আমাদের দিতে পারবেন না। এখনও সময় আছে আপনারা বসেন নয়তো এ কমিটি নিয়ে আপনারা কোথাও কোনো দলীয় কার্যক্রম চালাতে পারবেন না।
কায়সার বলেন, আমি কিন্তু বলিনি সোনারগাঁয়ের আওয়ামী লীগের সভাপতি হবো। তৃণমূল আওয়ামী লীগ যদি মনে করে আমি সভাপতি হওয়ার যোগ্য তাহলেই হবো। সোনারগাঁয়ের আওয়ামী লীগের রাজনীতি হাসনাত পরিবারের রক্তে মিশে আছে। হাসনাত পরিবারকে উপেক্ষা করে আওয়ামী লীগের কোনো কমিটি সোনারগাঁয়ের তৃনমূল নেতাকর্মীরা কখনই মেনে নেবেনা।
বক্তব্যে মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও নব গঠিত কমিটির সদস্য আরিফ মাসুদ বাবু বলেন, আহবায়ক কমিটিতে আমাকে সদস্য করা হয়েছে। এই কমিটিতে আমাকে আহবায়ক করা হলেও আমি যাবো না। আমাদের পরিবারের কাউকে পদ না দেওয়া হোক তবে ত্যাগী নেতাকর্মীদের বাদ দিয়ে সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের কমিটি আমরা মেনে নেবো না। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য দেন, সোনারগাঁ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন, মোগরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফ মাসুদ বাবু, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক দেওয়ান উদ্দিন চুন্নু, ত্রান ও সমাজ তৈয়ব আলী, তথ্য ও গভেষনা সম্পাদক আশরাফুজ্জামান, পৌরসভা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হেকিম মোল্লা, উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর ইসলাম রুমা, জামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হুমায়ুন কবির, কাঁচপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল্লাহ মাস্টার, বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শহীদুল্লাহ, বারদী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার দাস, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি গাজী মুজিবুর, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারন সম্পাদক আরিফুল ইসলাম রবিন, আওয়ামীলীগ নেতা আল আমিন সরকার, উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দেওয়ান শরীফ, বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নবী হোসেন প্রমুখ।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *