জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের প্রয়ান দিবস উপলক্ষে সরকারি তোলারাম কলেজে আলোচনা সভা

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৪৩ তম প্রয়াণ দিবস ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম স্মৃতি সংসদের ২৩ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সরকারি তোলারাম কলেজে আলোচনা সভা ও বিজয় কেতন বইয়ের মোড়ক উন্মুচন করা হয়েছে। জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম স্মৃতি সংসদের সভাপতি, জেলা মহিলা লীগের সভাপতি ও তোলারাম কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. শিরিন বেড়মের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মোঃ জসিম উদ্দিন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সরকারি তোলারাম কলেজের অধ্যক্ষ বেলা রানী সিংহ। জাকির হোসেন মৃধার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম স্মৃতি সংসদের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক কবি হুমায়ূন কবির, সাইফুল ইসলাম(রিপন), মোঃ মঈন উদ্দিন, মামুন মিয়া, মঈন আহসান প্রমুখ। অনুষ্ঠানে পবিত্র কোরআন তেলোয়াত করেন মাহবুবুর রহমান স্বপন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, কাজী নজরুল ইসলাম আমাদের জাতীয় জীবনের অনুপ্রেরণা। নজরুল সম্পর্কে নতুন প্রজন্মকে জানাতে হবে। ফেজবুক ও ইন্টারনেটের যুগে আমরা নজরুল গবেষণা থেকে দুরে সরে যাচ্ছি। তাই নজরুলের সকল কাব্য ও তার ভাষা জ্ঞান সম্পর্কে এ প্রজন্মকে জানাতে হবে। সভাপতি প্রফেসর ড. শিরিন বেগম বলেন, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামকে বঙ্গবন্ধু ১৯৭২ সালে বাংলাদেশে নিয়ে আসেন। নজরুল ছিলেন ৫২’ ভাষা আন্দোলন, ৭১’এর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা। তার গান ও কবিতা মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীনতা অর্জনের হাতিয়ার ও অনুপ্রেরণা। নারীর অধিকার ও নারীকে সন্মানীত করার কথা নজরুল তার নারী কবিতায় বিভিন্ন ভাবে লিখে গেছেন। বাংলাদেশের সৃষ্টি ও স্বাধীনতার সাথে নজরুলের নাম জড়িয়ে আছে। যিনি সাম্য ও অসাম্প্রদায়িকতা প্রতিষ্ঠায় সারা জীবন কাজ করে গেছেন। তিনি আরো বলেন আগষ্ট আসলে আমরা শোকাহত হয়ে পড়ি। আগষ্ট মাস বাঙ্গালীর বর্ষপঞ্জিতে শোকের কালিমায় চিহ্নত হয়ে আছে ৩ জন মহান কবির প্রয়াণ দিবস নিয়ে। এ মাসে বিশ^ কবি রবিন্দ্রনাথ ঠাকুর, মানবতার কবি কাজী নজরুল ইসলাম ও সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি ও রাজনৈতিক কবি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। অনুষ্ঠানে নজরুলের কবিতা আবৃত্তি করেন জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক সিরাজুল ইসলাম। আলোচনা শেষে নজরুল সংগীত পরিবেশন করেন সরকারি তোলারাম কলেজের উচ্ছ্বাস সাংস্কৃতি শিল্পী গোষ্ঠি।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *