সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইলে মাদকে ছড়াছড়ি

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি
নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৪নং ওয়ার্ড মাদকে সয়লাভ। হাত বাড়ালেই মিলছে বিভিন্ন মাদক দ্রব্য। এতে বিপদগামী হচ্ছে স্কুল কলেজ পড়–য়া শিক্ষার্থীসহ যুবসমাজ। বৃদ্ধি পাচ্ছে আনা অপরাধ মূলক কর্মকান্ড। স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন মাদকের বিরুদ্ধে মূখে সোচ্চার থাকলেও কাজে উদাসিন। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নাসিক ৪ নং ওয়ার্ডের শিমরাইল উত্তর পাড়ায় বুক ফুলিয়ে মাদক ব্যবসা করছে জমসেরের ছেলে আলীনুর, শিপনের ছেলে বকুল, জমসেরের ভাতিজা আফানুর, শিমরাইল দক্ষিণ পাড়া রিনালয় সিএনজি পাম্পের উত্তর পাশে সিরাজুলের ছেলে মোহাম্মদ আলী ওরফে ফেনসি আলী, তার ছোট ভাই মুক্তার, রবিউল ও তার ছেলে মাসুদ,শিমরাইল পেপার মিল এলাকায় হাসেমের ছেলে আলী আহম্মেদ, তার স্ত্রী পরিভানু, মেয়ে টুনি, নজরুলের স্ত্রী হাসু, আজু মিয়ার মেয়ে নাজমা, বদুর বাড়ির সাথে সুমি, ভিতি, সাহিদা, রুনা, সেলিম, শুক্কুর মিস্ত্রির ছেলে টিটু, ইব্রাহীম সরদারের ছেলে ফারুক, সিদ্দিক মিয়ার ছেলে সালাউদ্দিন, জাহাঙ্গীর, শাকিল,সহ আরো অনেকে। সরেজমিনে বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, সন্ধার পর মাদকের হাট বসায় এসব ব্যবসায়ীরা। ইয়াবা ট্যাবলেট, ফেনসিডিল, গাঁজা ও হেরোইন বিক্রি করছে দেদারছে। এলাকার স্কুল কলেজ পড়–য়া শিক্ষার্থী, উঠতি বয়সের যুবক ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজনের ভির দেখা গেছে এসব মাদক স্পটে। একাধিক মাদক ব্যবসায়ীরা জানায়, স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে ম্যানেজ করে তারা মাদক ব্যবসা করছে। কয়েকজন পুলিশ অফিসার নিয়মিত মাদক স্পটে গিয়ে উৎকোচ মাসোহারা আদায় করছে। পুলিশ ম্যানেজ থাকায় মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।
এলাকাবাসী ক্ষোভের সাথে জানায়, বর্তমান সরকার মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান গ্রহন করলেও সিদ্ধিরগঞ্জের প্রশাসন নিরব। জেলা পুলিশ সুপার বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মাদক বিরোধী কঠোর বক্তব্য প্রদান করলেও বাস্তবে তার কার্যকারীতা হচ্ছেনা শিমরাইলে। মাঝে পুলিশ লোক দেখানো অভিযান চালিয়ে দুএকজন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার করলেও মূল হোতারা রয়ে যায় ধরাছোঁয়ার বাইরে। তাই জেলা পুলিশ সুপার ও র‌্যাবের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন সচেতন মহল।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *