বিদেশের মাটিতে নারী হকির প্রথম জয়

জোবায়দা হোসেন লাভলী
সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠানরত এশিয়ান হকি ফেডারেশনের টুর্নামেন্ট অনূর্ধ্ব-২১ নারী হকিতে বাংলাদেশ স্মরণীয় জয় তুলে নিয়েছে। মঙ্গলবার গ্রুপ পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় খেলায় বাংলাদেশ ২-০ গোলে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কাকে। আগের দিন অনুষ্ঠিত প্রথম খেলায় স্বাগতিক সিঙ্গাপুরের কাছে বাংলাদেশ হেরেছিল ৩-০ গোলে। সেই ম্যাচটায় হারলেও বাংলাদেশ ভালো খেলেছিল। প্রথম দুই কোয়ার্টারে কোনো গোল হজম করেনি। ঠেকিয়ে রেখেছিল সিঙ্গাপুরকে। তৃতীয় কোয়ার্টারে ২ গোল এবং চতুর্থ কোয়ার্টারে ১ গোল হজম করে খেলায় হেরে যায়। এই হারের চব্বিশ ঘন্টা না যেতে বাংলাদেশের নারী হকি খেলোয়াড়রা অপ্রত্যাশিতভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। লঙ্কানদের বিপক্ষে জয় উপর দিয়েছে দেশকে। সিঙ্গাপুরের স্যাং ক্যাং স্টেডিয়ামে দুই গোল করেছেন তারিন আক্তার খুশী এবং ফারদিয়া আক্তার রাত্রী। চার কোয়ার্টারের খেলায় প্রথম কোয়ার্টারে খেলার নিয়ন্ত্রণ ছিল বাংলদেশের ষ্টিকে। দ্বিতীয় কোয়ার্টারে তারিন আক্তার খুশি গোল করেন। পেনাল্টি কর্নার হতে লিগ এনে দেন এই তারিন। দ্বিতীয় গোলটি হয় ৫৮ মিনিটে। সেটিও পেনাল্টি কর্নার হতে। এবার গোল করেছেন ফারদিয়া আক্তার রাত্রী। এই দুই গোলদাতা খেলা শেষে জানিয়েছেন দেশকে ইতিহাস সৃষ্টি করা জয় এনে দিতে পেরে দারুন লাগছে। আমরা আরো জয় পেতে চাই। আজ বাংলাদেশের তৃতীয় খেলা চায়নীজ তাইপের বিপক্ষে। বাংলাদেশের নারী হকি খেলোয়াড়রা ইতিহাসের সবচেয়ে স্মরণীয় জয়টি পেলেন বিদেশে মাটিতে। এর আগে এমন জয় আর কখনো আসেনি নারী হকিতে। স্মরণীয় জয়ের সাক্ষী হয়েছেন সিঙ্গাপুরে অবস্থানরত প্রবাসী বাঙ্গালীরা। শতাধিক প্রবাসী স্টেডিয়ামে খেলা দেখেছেন। বাংলাদেশের নারী খেলোয়াড়দের প্রেরণা দিয়েছেন। অথচ এই নারীরা মাত্রই হকি ষ্টিক ধরতে শিখেছে। কখনো আন্তর্জাতিক ম্যাচও খেলেনি। তাদের নিয়ে হকি ফেডারেশন কয়েক মাস আগে থেকে প্রস্তুতি শুরু করেছিল। একেবারেই খেলতে পারে না। কিন্তু খেলার আগ্রহ প্রচুর। সেই খেলোয়াড়দের নিয়ে কয়েক মাসের আবাসিক ক্যাম্প করা হয়েছিল হকি স্টেডিয়ামে। ভারত থেকে উপদেষ্টা কোচ আনা হয়েছিল। আনা হয়েছিল ভারতীয় হকি একাডেমীর মেয়েদের। যারা কোরিয়ায় খেলে এসে ঢাকায় ছয়টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছিল। তাদের বিপক্ষে কোনো খেলায় না জিতলেও খেলতে খেলতে বুঝিয়ে দিচ্ছিলেন সাহস বাড়ছিল নারী খেলোয়াড়দের। বলা হচ্ছিল এরা ভবিষ্যতের দল হিসাবে গড়ে উঠবে। তাই সিঙ্গাপুর যাওয়ার আগে তাদের নিয়ে কেউ প্রত্যাশার মালা গাঁথেনি। সিঙ্গাপুরে গিয়ে বাংলাদেশের নারীরা দ্বিতীয় খেলায় জয় তুলে আনলো। বাংলাদেশকে দারুন একটা ভালো খবর দিলো।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *