শেখ রাসেল পার্ক রক্ষায় হরতালের হুমকি

ডান্ডিবার্তা রিপোর্ট
শহরের ১নং সিরাজদ্দৌলা রোড, রেলওয়ে স্টেশন কলোনী এবং আশেপাশের অব্যবহৃত ভূমি ডাবল লাইনের নামে উচ্ছেদ করার জন্য আবারও আগামী ১৬অক্টোবর দিন ধার্য্য করায় এর প্রতিবাদে নগরীতে মানবন্ধন করেছে রেলওয়ে কলোনীবাসী এবং আশেপাশের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীগন। গতকাল সোমবার বিকাল ৫টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব মিলনায়তনের সামনে অনুষ্ঠিত হয় এ মানববন্ধন। মানবন্ধনে এ সময় বক্তরা বলেন, ইতিমধ্যে রেল কর্তৃপক্ষ মাইকিং করে এলাকাবাসীকে আতংকের মধ্যে রেখেছে। রেলওয়ের ডাবল লাইন সময়ের দাবী। এ ব্যপারে আমাদের কোন দ্বিমত নেই। কিন্তু ডাবল লাইনের নামে আতংক সৃষ্টি করে এখানে বসবাসরত বাসিন্দাদের উচ্ছেদ করে ভূমি দস্যুদের কুকর্ম হাসিল করার অশুভ পায়তারা আমরা মেনে নেব না। এর প্রতিবাদে আমাদের আজকের এই মানববন্ধন। ইতিপূর্বে ২৫জুলাই ভূমি দস্যু পিন্টু ও মোস্তফা গংরা স্থানীয় কিছু কুচক্রী মহলের যোগসাজসে দখলে নেওয়ার চক্রান্তের বিশাল পায়তারা করছে। তারা আরো বলেন, ইতিপূর্বে ২০১২ সালে পিন্টু, মোস্তফা গং রেলওয়ের কিছু অসাধু কর্মচারী ও স্থানীয় কিছু তথাকথিত নেতাদের যোগসাজশে রেলওয়ে ৪৩,২০০ বর্গফুট জায়গা দখলে নেওয়ার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু জনতার প্রতিরোধের মুখে তারা তখন সরে যেতে বাধ্য হয়। এখানে রেলওয়ে কলোনীবাসী বংশপরম্পরায় তিনপুরুষ রেলওয়েতে চাকুরীর সুবাদে বসবাস করছেন। পুনর্বাসন না করে তাদেরকে তথাকথিত নেতাদের সহযোগিতায় এই পিন্টু মোস্তফা গংরা উচ্ছেদ করতে চেয়েছিল। কিন্তু জনতার ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধের মুখে তা ব্যর্থ হয়। বর্তমানে রেলওয়ের ডাবল লাইন সময়ের দাবি। তাই ডাবল লাইনের প্রয়োজনে এলাকাবাসী স্বেচ্ছায় ভূমি ছেড়ে দিতে প্রস্তুত। বাকী জায়গায় তারা নিয়ম অনুযায়ী খাজনা দিয়ে থাকতে চায়। নেতৃবৃন্দ রেলওয়ে কতৃপক্ষের বর্তমান ভূমিকার নিন্দা জানান। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ উচ্ছেদের নামে চাঁদাবাজিতে লিপ্ত রয়েছে। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ গত কিছুদিন ধরে জিমখানা দেওভোগ বাবুরাইল শেখ রাসেল পার্ক নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করছেন। আমরা রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের এহেন বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানাই। নারায়ণগঞ্জবাসীর দীর্ঘদিনের দাবী একটি পার্ক। অনেক চেষ্টার পর শত বাধাবিপত্তি পার করে নারায়ণগঞ্জ সিটি মেয়রের উদ্যোগে এই পার্কের কাজ চলমান রয়েছে। শেখ রাসেল নগর পার্কের বিরুদ্ধে কোন ষড়যন্ত্র নারায়ণগঞ্জবাসী মেনে নিবে না। মানববন্ধনে মন্তাজ সর্দারের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান, বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলার অন্যতম সদস্য আবু নাঈম খান বিপ্লব, মেকানিক শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি মোঃ তাজুল ইসলাম এবং স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মোঃ ইসমাইল সহ প্রমূখ।

About ডান্ডিবার্তা

View all posts by ডান্ডিবার্তা →

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *